রোমের প্রথম সম্রাট অগাস্টাসের মার্বেল নির্মিত মূর্তির মাথার অংশ পাওয়া গেছে ইসারনিয়া শহরে। শহরটির অবস্থান ইতালির দক্ষিণের মলিস অঞ্চলে। মার্বেল নির্মিত মূর্তিটি প্রায় ২ হাজার বছরের পুরোনো বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

সিএনএন-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০১৩ সালের বর্ষায় ধসে যাওয়া একটি পুরোনো দেয়াল মেরামত করতে গিয়ে মূর্তির ধ্বংসাবশেষটি খুঁজে পান প্রত্নতত্ত্ববিদ ফ্রান্সেসকো জিয়াঙ্কোলা। ইসারনিয়া পৌর শহরের হয়ে তিনি কাজ করছিলেন।

বৃহস্পতিবার সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রত্নতত্ত্ববিদ ফ্রান্সিসকো জিয়াঙ্কোলা বলেন, ‘আমি কখনও আশা করিনি এটি খুঁজে পাব। যখন আমরা দেয়ালটির পেছন দিকে খুঁড়ছিলাম, তখন দেখতে পেলাম মাটির রঙ বদলে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা খোঁড়া বন্ধ করিনি। এক পর্যায়ে মার্বেলের একটি গঠন বেরিয়ে আসে। সহসাই দেখলাম, এটি একটি মূর্তির মাথার অংশ। পর্যবেক্ষণ করে দেখি, এটি অগাস্টাসের চেহারার সঙ্গে মিলে যায়। বিশেষ করে তার চুল, গঠন, চোখের অংশের মিল পাওয়া যায়।

মুর্তির ভাঙা অংশটি পাওয়ার পর কর্তৃপক্ষকে খবর দেওয়া হয়। জানানো হয় মেয়র এবং সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য মন্ত্রণালয়কেও।

মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় এক প্রত্নতত্ত্ববিদ মারিয়া ডিলেট্টা কলম্বো জানান, মার্বেল নির্মিত মুর্তিটির মাথার অংশের দৈর্ঘ্য ৩৫ সেন্টিমিটার। ধারণা করা হচ্ছে, খ্রিস্টপূর্ব ২০ অব্দ থেকে ১০ খ্রিস্টাব্দের মাঝামাঝি সময়ে এটি তৈরি করা হয়েছে।

এই প্রত্নতত্ত্ববিদ বলেন, এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ মূর্তি। আমরা জানি না এটি কেন এখানে রয়েছে। সম্ভবত রাজপরিবারের অর্চনার জন্য এটি একটি মন্দিরে নেওয়া হয়েছিল। তবে আমরা নিশ্চিত নই। এটি কেবল আমাদের ধারণা মাত্র।

যে মুর্তিটি থেকে মাথা আলাদা হয়েছে, সেটি ২ মিটারের বেশি দীর্ঘ। পুরো মূর্তিটি লুনিজিয়ানা মার্বেলে নির্মিত। ইতালিয়ান রেনেসাঁ শিল্পী মাইকেল এঞ্জেলো এ ধরনের মার্বেল ব্যবহার করতেন। এটি তরুণ অগাস্টাস অক্টাভিয়াসের আদলে তৈরি।

উল্লেখ্য, রোমের প্রথম শাসক অগাস্টাস খ্রিস্টপূর্ব ২৭ অব্দে সিংহাসনে আরোহণ করেন।

ইসারনিয়া প্রাচীন বিশ্বে এইসারনিয়া নামে পরিচিত ছিল। ইতালির প্রাচীন জনগোষ্ঠী স্যামনিটিসদের আবাসস্থল ছিল এ শহর। পরবর্তীতে এটি রোমান কলোনির অন্তর্ভুক্ত হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় শহরটি আংশিক ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল। যদিও পরে এটি পুননির্মিত হয়।

Related posts

৩ হাজার বছরের পুরোনো সোনার শহরের সন্ধান!

News Desk

সেতু ভেঙে খেরসন ত্যাগ রুশ বাহিনীর

News Desk

বাতাসের মাধ্যমেই করোনা বেশি ছড়ায়

News Desk

Leave a Comment