free hit counter
আন্তর্জাতিক

পেলোসির সফর শেষেই তাইওয়ান উপকণ্ঠে চীনের সামরিক মহড়া

ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সফর শেষে তাইওয়ানের কাছে সামরিক মহড়া চালিয়েছে চীন। স্থানীয় সময় বুধবার (৪ আগস্ট) এ মহড়া অনুষ্ঠিত হয়।

পেলোসির প্রহসনের সফরের প্রতিক্রিয়ায় তাইওয়ানের কাছে সাগরে ও আকাশ পথে এ মহড়া পরিচালিত হয়। এ প্রসঙ্গে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) ইস্টার্ন থিয়েটার কমান্ড জানিয়েছে, তাইওয়ানের উত্তর, দক্ষিণ-পশ্চিম এবং দক্ষিণ পূর্ব এলাকার সাগর ও আকাশ পথে পরিচালিত সামরিক মহড়ায় নৌবাহিনী, এয়ারফোর্স, রকেট ফোর্স, স্ট্র্যাটেজিক সাপোর্ট ফোর্স ও জয়েন্ট লজিস্টিক সাপোর্ট ফোর্স অংশ নেয়। খবর বিবিসি ও ডয়চে ভেলের।

সামরিক মহড়া নিয়ে যা জানা গেছে

মার্কিন হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফর নিয়ে তীব্র আপত্তি জানিয়েছিল চীন। তা সত্ত্বেও পেলোসি তাইওয়ান গেছেন। চীন এখন তাদের সামরিক শক্তির কিছুটা আভাস যুক্তরাষ্ট্রকে দেখিয়ে প্রতিবাদ জানাতে চাইছে।

সরকারি ট্যাবলয়েড গ্লোবাল টাইমস জানিয়েছে, পেলোসির তাইওয়ান সফর ঘিরে যা হয়েছে, তাতে যুক্তরাষ্ট্র ছিল উস্কানিদাতা।

তাইপেই সতর্ক

তাইওয়ান বলেছে, চীনের এই সামরিক ড্রিল আঞ্চলিক সুরক্ষার ক্ষেত্রে বিপদের কারণ। তাইওয়ানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেছেন, চীন অযৌক্তিক কাজ করছে। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তাইপেই সতর্ক। সব জাহাজ ও নৌকাকে বলে দেয়া হয়েছে, ড্রিল চলার সময় তারা যেন সমুদ্রে না যায়। বুধবার চীনের যুদ্ধজাহাজ ও ড্রোন তাইওয়ানের এয়ার ডিফেন্স জোনে ঢুকে পড়েছিল বলে তাইপেই অভিযোগ করেছে।

পশ্চিমা দেশের নিন্দা

ইইউ-র পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোসেপ বরেল চীনের এই সামরিক ড্রিলের নিন্দা করেছেন। তিনি বলেছেন, এই ড্রিলের কোনো যৌক্তিকতা নেই। জি-সেভেনও একই কথা বলেছে। তাদের মতে, এর ফলে ওই অঞ্চলে উত্তেজনা বাড়বে।

ডি- এইচএ

Source link