free hit counter
পাকিস্তানে চীন রাষ্ট্রদূতকে লক্ষ্য করে বিলাসবহুল হোটেলে বোমা হামলা
আন্তর্জাতিক

পাকিস্তানে চীন রাষ্ট্রদূতকে লক্ষ্য করে বিলাসবহুল হোটেলে বোমা হামলা

পাকিস্তানের কোয়েটা শহরে একটি বিলাসবহুল হোটেলে বোমা হামলায় ১৬ জন হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। নিহত হয়েছেন চারজন, আহতের সংখ্যা ১২। ধারণা করা হচ্ছে, পাকিস্তানে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূতকে লক্ষ্য করে সেরিনা হোটেলের গাড়ি পার্কিং এলাকায় এই বোমা হামলা ঘটনা ঘটে।

পাকিস্তানের পত্রিকা ডন’র খবরে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশে আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী কোয়েটা শহরে অবস্থান করছেন চীনের রাষ্ট্রদূত। তবে হামলার সময় রাষ্ট্রদূত সে হোটেলে ছিলেন না। পাকিস্তানী তালেবান বলেছে, এই হামলা তারাই চালিয়েছে। কিন্তু বিস্তারিত কিছু জানায়নি তারা।

সম্প্রতি পাকিস্তানি তালেবান এবং অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনগুলো আফগানিস্তান সীমান্তে উপজাতীয় এলাকায় তাদের হামলা বৃদ্ধি করেছে। বৃহস্পতিবারের এই বোমা হামলার ভিডিও ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, হোটেলের গাড়ি পার্কিং এলাকায় আগুন জ্বলছে।

কোয়েটা শহরের এই সেরিনা হোটেল বেশ সুপরিচিত। সরকারি কর্মকর্তা এবং সে এলাকা সফররত পদস্থ ব্যক্তিরা সচরাচর হোটেলটিতে অবস্থান করেন। পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ স্থানীয় একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে বলেছেন, বিস্ফোরক বোঝাই একটি গাড়ি হোটেলটিতে বিস্ফোরণ ঘটায়। এই ঘটনাকে ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন তিনি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের কাছে তালেবানের একজন মুখপাত্র নিশ্চিত করেছেন যে, এটি ছিল আত্মঘাতী বোমা হামলা। একটি গাড়ি ভর্তি বিস্ফোরক নিয়ে হোটেলটিতে হামলা চালানো হয়েছে।

এদিকে বিবিসি বলছে, কোয়েটা শহরে অবস্থিত সেরেনা হোটেলে অবস্থান করছিলেন চীনের রাষ্ট্রদূত। সেখানে গাড়ি পার্কিংয়ের স্থানে তাকে লক্ষ্য করে এ হামলা চালানো হয় বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। তবে হামলার স্থানে উপস্থিত ছিলেন না।

পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ এটাকে সন্ত্রাসবাদ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, ‘বিস্ফোরণে কমপক্ষে চারজন মারা গেছেন এবং ১২ জন আহত হয়েছেন। রাষ্ট্রদূতের নেতৃত্বে প্রায় চারজনের একটি চীনা প্রতিনিধি হোটেলটিতে অবস্থান করছিলেন। বিস্ফোরণের সময় রাষ্ট্রদূত একটি মিটিংয়ে অংশ নিতে হোটেলের বাইরে যান।’

কোয়েটার জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা আজহার ইকরাম হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে ডনকে বলেন, পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। আশা করছি আমরা একটি যৌক্তিক ফলাফলে পৌঁছাবো।

স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার রাত ১০টা ১৫ মিনিটে বিস্ফোরণটি ঘটে। ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকল, উদ্ধার কর্মকর্তা এবং নিরাপত্তা বাহিনী। কাউকে ঘটনাস্থলে যেতে দেওয়া হয়নি।

Related posts

চীনের সিনোফার্মের ২০ লাখ টিকা আসছে আজ

News Desk

পাকিস্তানে টক শোয়ের মধ্যে হাতাহাতি, সাংসদের গালে চড়

News Desk

সিন্ধু প্রদেশে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫১

News Desk