free hit counter
আন্তর্জাতিক

পাঁচ হাজার গাড়ি চুরির পর ধরা পড়লেন তিনি

গ্রেপ্তার হওয়া অনিল চৌহান। ছবি : সংগৃহীত

ভারতের বিভিন্ন জায়গা থেকে পাঁচ হাজারের বেশি গাড়ি চুরি করার অভিযোগে অনিল চৌহান (৫২) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সেন্ট্রাল দিল্লি পুলিশের স্পেশাল স্টাফ দেশবন্ধু গুপ্ত রোড এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় তার কাছ থেকে ছয়টি পিস্তল ও সাতটি কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।

সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদন থেকে এ খবর জানা গেছে। গ্রেপ্তারকৃত অনিল দিল্লি, মুম্বাই এবং উত্তর-পূর্বে সম্পত্তিসহ বিলাসবহুল জীবনযাপন করতেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, অনিল দেশের সবচেয়ে বড় গাড়িচোর এবং গত ২৭ বছরে পাঁচ হাজারের বেশি গাড়ি চুরি করেছেন। এ ছাড়া চুরির সময় কয়েকজন ট্যাক্সিচালককেও হত্যা করেছেন। অনিল বর্তমানে অস্ত্র চোরাচালানের সঙ্গে জড়িত। তিনি উত্তর প্রদেশ থেকে অস্ত্র নিয়ে আসছিলেন এবং উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোর নিষিদ্ধ সংগঠনগুলোতে সরবরাহ করছিলেন।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, গ্রেপ্তার হওয়া অনিল দিল্লির খানপুর এলাকায় থাকাকালে অটোরিকশা চালাতেন। ১৯৯৫ সালের পর থেকে গাড়ি চুরি করতে শুরু করেন। সেই সময়ের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মারুতি ৮০০ গাড়ি চুরি করার জন্য তিনি বেশ পরিচিত। অনিল চৌহান দেশের বিভিন্ন জায়গায় গাড়ি চুরি করে নেপাল, জম্মু ও কাশ্মীর এবং উত্তর-পূর্ব রাজ্যে পাঠাতেন। শেষ পর্যন্ত তিনি আসামে চলে যান এবং সেখানে বসবাস শুরু করেন। তার অর্জিত সম্পদ দিয়ে তিনি দিল্লি, মুম্বাই এবং উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোতে সম্পত্তি সংগ্রহ করেছিলেন।

তদন্ত সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটও তার বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং মামলা করেছে। এর আগে অনিলকে বেশ কয়েকবার গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। তার নামে ১৮০টি মামলা রয়েছে।

এনজে

Source link