free hit counter
আন্তর্জাতিক

ন্যাটোর পারমাণবিক অস্ত্রের মহড়া শুরু

ছবি: সংগৃহীত

রাশিয়ার সঙ্গে চলমান উত্তেজনার মধ্যে পারমাণবিক অস্ত্রের মহড়া শুরু করেছে উত্তর আটলান্টিক নিরাপত্তা জোট (ন্যাটো)। পশ্চিম ইউরোপে শরু হওয়া এই মহড়াকে নিয়মিত মহড়া বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন ৩০টি সদস্য দেশের এই সামরিক জোট জোর দিয়ে বলছে যে, এই মহড়া ন্যাটোর রুটিন কাজ। চলমান প্রশিক্ষণ কার্যকলাপ যা আগামী ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে। ন্যাটো দাবি করে বলছে, রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালানোর আগেই তারা এই মহড়ার পরিকল্পনা করেছিল। খবর এএফপির।

তবে ন্যাটোর এই দাবি সত্যি হলেও বর্তমান পরিস্থিতিতে এই মহড়া রাশিয়ার সঙ্গে নতুন করে উত্তেজনা তৈরি করতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের দূরপাল্লার বি-৫২ বোমারু বিমান ওই মহড়ায় অংশ নেবে এবং মোট ৬০টি বিমান বেলজিয়াম, যুক্তরাজ্য এবং উত্তর সাগরের ওপর দিয়ে প্রশিক্ষণে অংশ নেবে।

তবে রাশিয়ার সঙ্গে উত্তেজনা থাকলেও এই মুহূর্তে মহড়া থেকে সরে আসতে রাজি নন ন্যাটোর প্রধান জেনস স্টলটেনবার্গ। গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমরা যদি এখন হঠাৎ করেই ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে দীর্ঘ পরিকল্পিত এই মহড়া বাতিল করি তবে তা হবে একটি খুব ভুল সংকেত।

তিনি বলেন, আমাদের বুঝতে হবে যে ন্যাটোর দৃঢ়তা, অনুমান নির্ভর আচরণ, আমাদের সামরিক শক্তি সব ধরনের উত্তেজনা প্রতিরোধের সর্বোত্তম উপায়। তিনি আরও বলেন, রাশিয়া তাদের নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসেনি। তবে আমাদের অবশ্যই এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।

এর আগে ইউক্রেন যুদ্ধে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এজন্য ধারণা করা হচ্ছে, শিগগিরই পারমাণবিক অস্ত্রের মহড়া চালাতে পারে রাশিয়া। এর মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের চ্যালেঞ্জ করা হবে। যাতে তারা কেবল অনুশীলন ও আসল জিনিসের মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারে।

Source link

Bednet steunen 2023