free hit counter
নেতানিয়াহুর বিদায়ের পরই ইসরায়েলে নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ বাইডেনের
আন্তর্জাতিক

নেতানিয়াহুর বিদায়ের পরই ইসরায়েলে নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ বাইডেনের

মাত্র দু’দিন আগেই ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে বিদায় নিয়েছেন বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। বসেছেন বিরোধী নেতার চেয়ারে। কট্টরপন্থি রাজনৈতিক নেতা নাফতালি বেনেট দায়িত্ব নিয়েছেন নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে। আর এরপরই দেশটিতে নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১৫ জুন) এক বিবৃতিতে নতুন রাষ্ট্রদূতের নাম ঘোষণা করে হোয়াইট হাউস। নতুন এই রাষ্ট্রদূতের নাম থমাস আর নাইডস। তিনি একজন ব্যাংকার এবং যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী। হোয়াইট হাউসের এই ঘোষণার পর এখন দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তাকে এই পদে মনোনয়ন দেবেন।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, থমাস নাইডস বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকিং কোম্পানি ‘মরগ্যান স্টানলে’র ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কাজ করছেন। বিনিয়োগখাতে এই প্রতিষ্ঠানটি যুক্তরাষ্ট্রের চতুর্থ-বৃহত্তম। এছাড়া সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার অধীনে ২০১১ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডেপুটি সেক্রেটারি বা উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

গত জানুয়ারিতে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নিলেও ইসরায়েলে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন দূতের নাম ঘোষণা করতে জো বাইডেন কয়েক মাস সময় নিলেন। কারণ ইসরায়েলের মতো দেশে দায়িত্বপালন করা যেকোনো মার্কিন রাষ্ট্রদূতের জন্যই কঠিন এবং একইসঙ্গে চ্যালেঞ্জিংও। এছাড়া নিয়োগ করা ব্যক্তির বৈশিষ্ট্য বিশ্লেষণ করেও বিশেষজ্ঞরা ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের বিষয়ে প্রেসিডেন্টের মনোভাব বোঝার চেষ্টা করে থাকেন।

ইসরায়েলে নতুন দূতের নাম এমন সময়ে ঘোষণা করা হলো যখন মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটিতে দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতায় থাকা বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর বিদায় হয়েছে এবং নাফতালি বেনেট নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন। দেশটির নতুন সরকারের সঙ্গে ওয়াশিংটন তার সম্পর্ক নতুনভাবে শুরু করতে চাইছে। এই আবহে দেশটিতে নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ নিঃসন্দেহে ওয়াশিংটন-তেলআবিব সম্পর্ক এগিয়ে নিতে ভূমিকা রাখবে।

আলজাজিরা জানিয়েছে, থমাস নাইডস মূলত ইসরায়েলপন্থি ডেমোক্র্যাট হিসেবে পরিচিত। কিন্তু তা সত্ত্বেও ফিলিস্তিনিদের জন্য জাতিসংঘের ত্রাণ তৎপরতা চালাতে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থায়ন শুরুর জন্য অগোচরে কাজ করেছেন। এছাড়া কাজের দক্ষতার জন্য সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের কাছ থেকে থমাস ডিশটিংগুইশড সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড লাভ করেছিলেন।

এসবের বাইরে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির জন্য বিপুলসংখ্যক অর্থের সংগ্রাহকও তিনি। সর্বশেষ নির্বাচনে বাইডেনসহ বছরের পর বছর ধরে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থীদের জন্য ৪৫ হাজার মার্কিন ডলারেরও বেশি অর্থ তিনি সংগ্রহ করেছেন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কিছু ইসরায়েলপন্থি সংগঠন থমাস নাইডসের এই মনোনয়নকে মঙ্গলবার স্বাগত জানিয়েছে। তিনি ইসরায়েলে ট্রাম্পের নিয়োগ করা বর্তমান দূত ডেভিড ফ্রায়েডম্যানের স্থলাভিষিক্ত হবেন।

উল্লেখ্য, দখলকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইহুদিদের অবৈধ বসতি স্থাপনের কট্টর সমর্থক ছিলেন ডেভিড ফ্রায়েডম্যান।

সূত্র: আলজাজিরা

Related posts

অলিম্পিকে সবাইকে পেছনে ফেলে শীর্ষে জাপান

News Desk

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আস্থা ফিরেছে

News Desk

ইরানের ওপর একতরফা মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান চীনের

News Desk