free hit counter
আন্তর্জাতিক

নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে ইমরান খান

রাষ্ট্রীয় উপহার বিক্রির তথ্য গোপন করায় পার্লামেন্ট সদস্য পদ খারিজ ও নির্বাচনের অযোগ্য ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ইসলামাবাদ হাইকোর্টে পিটিশন দায়ের করেছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। আজ শনিবার তাঁর পক্ষ থেকে এই আবেদন করা হয়। এর আগে গতকাল শুক্রবার ইমরানের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক এমন সিদ্ধান্তের কথা জানায় পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন (ইসিপি)।

হাইকোর্টে করা আবেদনে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান উল্লেখ করেছেন, তাঁর বিরুদ্ধে যে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, এমন সিদ্ধান্ত জানানোর আইনগত এখতিয়ার ইসিপির নেই। তাই আদালতের কাছে তাঁর আবেদন, এই সিদ্ধান্ত বাতিল করা হোক।আগামী সোমবার ইসলামাবাদ হাইকোর্টে ইমরানের এ আবেদনের শুনানি হওয়ার কথা।

গতকাল প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিকান্দার সুলতান রাজার নেতৃত্বে ইসিপির পাঁচ সদস্যের প্যানেল ইমরানের বিরুদ্ধে রায় দেয়। ইমরানের বিরুদ্ধে অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময় তিনি বিদেশ থেকে পাওয়া উপহারের তথ্য গোপন করে আইনের লঙ্ঘন করেছেন। তিনি কিছু উপহার বিক্রিও করেছেন।

সংবিধানের যে ৬৩(১)(পি) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী ইমরান খানকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে, তাতে তিনি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য পার্লামেন্ট ও প্রাদেশিক পরিষদে নির্বাচন করতে পারবেন না। পাকিস্তানি আইন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই আইন অনুযায়ী তিনি পাঁচ বছর নির্বাচন করতে পারবেন না।

Bednet steunen 2023