free hit counter
আন্তর্জাতিক

গোতাবায়া শ্রীলঙ্কায় ফিরতে পারেন শনিবার

গোতাবায়া রাজাপাকসে

অর্থনৈতিক সংকট ও গণআন্দোলনের মুখে দেশ ছাড়েন শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। প্রথমে তিনি প্রতিবেশী দেশ মালদ্বীপে আশ্রায় নেন, সেখান থেকে সিঙ্গাপুর, পরে থাইল্যান্ডে পাড়ি জমান। তবে এবার গোতাবায়া নিজ দেশ শ্রীলঙ্কায় ফিরতে যাচ্ছেন। শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) লঙ্কায় ফিরতে পারেন তিনি। খবর: পিটিআইয়ের।

গণমাধ্যমে দাবি করা হচ্ছে দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহে গোতাবায়ার দেশে ফেরার সব ব্যবস্থায় করে দিচ্ছেন। গোতাবায়া রাজাপাকসে গত জুলাই মাসে একটি সামরিক বিমানে করে মালদ্বীপ পালিয়ে যান। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পূর্ণ অনুমোদনের পর রাজাপাকসে এবং তার স্ত্রী কাতুনায়েকে দেশ ছাড়েন।

সংবাদমাধ্যম বলছে, শ্রীলঙ্কার কোনো আইনেই ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্টকে গ্রেপ্তারের বিধান নেই। তবে পদত্যাগের পর গ্রেপ্তার হওয়ার হাত থেকে বাঁচতে গোতাবায়া বিদেশে পালিয়ে যান বলে ধারণা করা হয়।

বার্তাসংস্থা পিটিআইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গোতাবায়া শনিবার শ্রীলঙ্কায় ফিরে আসবেন বলে তার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানিয়েছে। একাধিক সংবাদমাধ্যমের রিপোর্টে বলা হচ্ছে, শ্রীলঙ্কার বর্তমান প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহে গোতাবায়া রাজাপাকসের ফেরার সব ব্যবস্থা করেছেন। মূলত রাজাপাকসাসের নেতৃত্বাধীন দল এসএলপিপি’র অনুরোধেই বিক্রমাসিংহে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেন।

রাজাপাকসেকে ক্ষমতা ছাড়ার পর শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্ট তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট এবং ছয়বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহেকে নতুন রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে নির্বাচিত করে। ২২৫ সদস্যের পার্লামেন্টের বৃহত্তম দল শ্রীলঙ্কা পোডুজানা পেরামুনার (এসএলপিপি) সমর্থনও ছিল বিক্রমাসিংহের।

সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটে পড়েছে শ্রীলঙ্কা। করোনা মহামারি, জাতীয় অর্থনীতি পরিচালনায় সরকারের অদক্ষতা, বিশ্বজুড়ে জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধি এবং রাষ্ট্রীয় কোষাগারে বৈদেশিক মুদ্রার মজুদ তলানিতে নেমে যাওয়ায় শ্রীলঙ্কায় বিপর্যয়কর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

এনজে

Source link