free hit counter
আন্তর্জাতিক

গভর্নর মিলেছে: অর্থমন্ত্রীর সন্ধানে শ্রীলঙ্কার সরকার

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসা

অর্থনৈতিক বিপর্যয়ে খাবি খাওয়া শ্রীলঙ্কার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা গভর্নরের দায়িত্ব নিচ্ছেন, এমন ইঙ্গিত পাওয়া গেলেও অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব নিতে কাউকে রাজি করাতে পারছে না দেশটির সরকার। গভর্নর নিয়োগের বিষয়ে অবগত একটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছে, বৃহস্পতিবারই নতুন গভর্নর দায়িত্বভার বুঝে নিচ্ছেন, শুক্রবার তিনি মুদ্রানীতি নিয়ে বৈঠকও করবেন।

ভয়াবহ মুদ্রাস্ফীতি, জ্বালানি সংকট, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের ঘাটতি ও উচ্চমূল্য, দিনে প্রায় ১৫ ঘণ্টার লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ দ্বীপদেশটির জনগণ প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে ও তার সরকারের পদত্যাগের দাবিতে কয়েক দিন ধরে বিক্ষোভ করে যাচ্ছে। এর মধ্যে গোটাবায়ার পুরো মন্ত্রিসভা পদত্যাগ করলে দেশটির রাজনৈতিক অস্থিরতা নতুন মাত্রা পায়; মন্ত্রিসভার সদস্যদের আগে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রধান অজিত নিভারদ কাবরালও পদত্যাগ করেন।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজাপাকসে একটি ঐক্যের সরকার গঠনের ডাক দিলেও বিরোধীদলগুলোর পাশাপাশি তার জোট সরকারের অংশীদারদের অনেকেও তাতে সাড়া দেয়নি। ঋণের জন্য চলতি মাসেই আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গে বৈঠক করতে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা, অথচ এখন পর্যন্ত দেশটি নতুন অর্থমন্ত্রীই ঠিক করতে পারেনি। ঋণের ভারে জর্জরিত সোয়া দুই কোটি মানুষের শ্রীলঙ্কার কাছে এখন আমদানির ব্যয় মেটানোর মতো পর্যাপ্ত বিদেশি মুদ্রা নেই; এ কারণে দেশটিতে জ্বালানি, ওষুধ ও নানা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের তীব্র ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নতুন গভর্নর হিসেবে নন্দলাল উইরাসিংহে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন এক কর্মকর্তা। নন্দলাল এক সময় লঙ্কান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের জ্যেষ্ঠ ডেপুটি গভর্নর ছিলেন, তিনি আইএমএফের সঙ্গেও কাজ করেছেন। মুদ্রানীতি নিয়ে বৈঠক গত সোমবার হওয়ার কথা ছিল। নতুন গভর্নর বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মন্তব্য চাওয়া হলেও তারা তাৎক্ষণিকভাবে তাতে সাড়া দেয়নি। গভর্নর মিললেও রাজাপাকসের সরকার এখন পর্যন্ত নতুন অর্থমন্ত্রী খুঁজে পায়নি। সর্বশেষ আলি সাবরি ওই পদে ছিলেন, কিন্তু নিয়োগ পাওয়ার একদিন পর মঙ্গলবারই তিনি দায়িত্ব ছেড়ে দেন। সরকার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানিয়েছে, নানা স্তরের একাধিক কর্মকর্তা এবং বেসামরিক খাতের অনেককে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব নিতে অনুরোধ জানিয়েও প্রেসিডেন্ট এবং তার ঘনিষ্ঠ সহযোগীরা সফল হতে পারেননি। এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য প্রেসিডেন্টের এক মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাৎক্ষণিকভাবে তার সাড়া মেলেনি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

দেশ ছাড়লেন নিরুপমা রাজাপাখসে : সাবেক উপমন্ত্রী নিরূপমা রাজাপাকসে গতকাল বৃহস্পতিবার কলম্বোর কাছাকাছি কাতুনায়কে বন্দরনায়েক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে দুবাইয়ের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। আরব আমিরাতের বিমান সংস্থা এমিরেটসের ইকে-৬৫৫ ফ্লাইটে তিনি দুবাইয়ের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। সিসি ক্যামেরায় তার একটি ছবিও প্রকাশ করে গণমাধ্যমটি। এর আগে প্যান্ডোরা পেপারসে নিরুপমা রাজাপাকসে নাম উঠে আসে। সে সময় তার দুর্নীতির কথাও জানাজানি হয়। প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসের চাচাতো বোন তিনি। ২০১০ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত তিনি পয়োনিষ্কাশনবিষয়ক উপমন্ত্রী ছিলেন। এদিকে দেশজুড়ে সরকারবিরোধী আন্দোলন তীব্র হলেও পদত্যাগ করবেন না বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। দেশটির সড়কমন্ত্রী জনস্টন ফার্নান্দো গণমাধ্যমকে এ কথা জানান। সরকারের শীর্ষ পদে গোতাবায়ার পরিবারের সদস্যদের ঠাঁই ও বেহাল অর্থনৈতিক দশা নিয়ে তুমুল সমালোচনার মধ্যেই ৪২ আইনপ্রণেতা সরকারি জোট ছেড়ে দিলেও পদত্যাগ না করা সিদ্ধান্তে অনড় গোতাবায়া রাজাপাকসে।

এসএইচ

Source link