free hit counter
আন্তর্জাতিক

ইসরায়েলের নির্বাচনে নেতানিয়াহুর জয়ের সম্ভাবনা

ফাইল ছবি

ইসরায়েলের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে গত মঙ্গলবার। বুথফেরত জরিপ আসার পর থেকেই আনন্দ-উল্লাসে মেতে উঠেছে দেশটির কট্টরপন্থি লিকুদ পার্টির সমর্থকরা। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে আল জাজিরা জানায়, মঙ্গলবারের ভোট শেষে জয়ের দৌড়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর ডানপন্থি জোট অনেকটা এগিয়ে আছে। পত্রিকাটি বলছে, ১২০ আসনের পার্লামেন্টে ৬২টি আসন পেতে চলেছে জোটটি। অন্যদিকে বিরোধী জোট ৫৪ আসনে ও বাকি চার আসনে এগিয়ে আছে অন্যান্য দল।

গত চার বছরের মধ্যে ৫ম বারের মতো সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো ইসরায়েলে। টানা ১২ বছর প্রধানমন্ত্রী থাকার পর গত বছর নির্বাচনে হেরে যান নেতানিয়াহু। দেশটিতে ইয়ার লাপিদের মধ্যপন্থি দল ইয়েস আতিদের সঙ্গে জোট করে সরকার গঠন করে ইয়েমিনা পার্টি। স¤প্রতি জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি, ইসরায়েল-ফিলিস্তিন উত্তেজনা ও ইরানসহ নানা ইস্যুতে বর্তমান সরকারে ফাটল দেখা দেয়। এরপরই আবারো নির্বাচনের আয়োজন করা হয়।

এদিকে নেতানিয়াহু আগেই প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, এবার প্রধানমন্ত্রী হলে ডানপন্থিদের সবচেয়ে প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ ইতামার বেন জিভির মতো কট্টরপন্থিদের নিয়েও সরকার গড়বেন তিনি। নেতানিয়াহুর সম্ভাব্য সেই মন্ত্রিসভা নিয়ে জনমনে এরই মধ্যে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। কারণ, কট্টর ডানপন্থি ইতামার বেন জিভির ইসরায়েলের নিষিদ্ধ ঘোষিত একটি চরমপন্থি গোষ্ঠী থেকে উঠে এসেছেন। অতীতে তার বিরুদ্ধে সরাসরি সন্ত্রাসবাদে সহযোগিতার অভিযোগ আছে। স্থানীয় আরবদের ‘ইসরায়েল রাষ্ট্রবিরোধী’ অভিহিত করে তাদের বাস্তুচ্যুত করার পক্ষে ওকালতি করেন তিনি।

এক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের ইসরায়েলপন্থি গোষ্ঠী এআইপিএসি বা আইপ্যাক ইতামার বেন জিভির ও তার নেতৃত্বাধীন কট্টর ইহুদিবাদী দল জুয়িশ পাওয়ার পার্টির কঠোর সমালোচনা করে আসছে। আইপ্যাকের মতে, জুয়িশ পাওয়ার পার্টি একটি বর্ণবাদী দল। তবে নেতানিয়াহু বলছেন, বেন জিভির আগের অবস্থান বদলে এখন ‘মডারেট’ তথা ‘মধ্যপন্থি’ হয়ে গেছেন।

এমকে

Source link

Bednet steunen 2023