free hit counter
আন্তর্জাতিক

ইলন মাস্কের টুইটই আটকে দিল টুইটার!

টুইটার কিনলেও এই সংক্রান্ত চুক্তি নিয়ে কোনও টুইট করতে পারবেন না ইলন মাস্ক। করলেও তা করতে হবে অনেক বুঝে। একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে এমনটাই জানানো হয়েছে সংস্থার পক্ষ থেকে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে যে, এই মুহূর্তে বিশ্বের সব থেকে বিত্তবান ব্যক্তিদের তালিকায় এক নম্বরে থাকা ইলন এই চুক্তি নিয়ে টুইট করতে চাইলে করতে পারেন। কিন্তু ইলনকে খেয়াল রাখতে হবে, তার টুইটের মাধ্যমে যেন কোনও ভাবেই সংস্থার কর্মী বা সংস্থার মানহানি না হয়। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

নতুন শর্তাবলিতে মাস্ক কী কী বিষয়ে টুইট করতে পারবেন তাও ঠিক করে দেওয়া হয়েছে। চুক্তির অনেক আগে থেকেই ইলন মাইক্রোব্লগিং সাইটের নেতৃত্ব এবং কার্যপ্রণালীর সমালোচনা করে বহু টুইট করেন। এমনকি মালিকানা পাওয়ার পরও তিনি টুইটার সম্পর্কে একাধিক টুইট করেছেন। টুইটগুলো অনেকের কাছে হাসির খোরাক হয়ে উঠলেও এর মধ্যে অনেকগুলি কর্মী এবং সংস্থার জন্য অবমাননাকর বলে মনে করেছে টুইটার। সংস্থাটি কেনার আগে ১৪ এপ্রিল একটি অনুষ্ঠানে মাস্ক জানিয়েছিলেন যে টুইটারের ব্যবস্থাপনায় তার আস্থা নেই।

সোমবার ২৫ মার্চ রাতে টুইটার কিনে নেন আমেরিকার ধনকুবের ইলন। ৪,৪০০ কোটি ডলার -এর বিনিময়ে এই মাইক্রোব্লগিং সাইটের মালিকানা পান তিনি।

টুইটার কিনে নেওয়ার পর পরই ইলন মাস্ক নিজের টুইটার হ্যান্ডল থেকে বলেন, “বাক্‌স্বাধীনতা গণতন্ত্রের ভিত্তিপ্রস্তর। আর টুইটার এমন একটি ডিজিটাল ক্ষেত্র যেখানে ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রতিনিয়ত তর্ক-বিতর্ক হয়। আমি টুইটারকে আগের থেকে ভালো এবং যুগোপযোগী করে তুলতে চাই যেখানে অনেক নতুন নতুন সুবিধা যোগ করা হবে। এর ফলে আদপে মানুষ উপকৃতই হবেন। টুইটার খুবই সম্ভাবনাময়। আমি এই সংস্থার সঙ্গে কাজ করার জন্য মুখিয়ে আছি।”