free hit counter
আফগানিস্তানের ৩ জেলার দখল নিল বিরোধী জোট
আন্তর্জাতিক

আফগানিস্তানের ৩ জেলার দখল নিল বিরোধী জোট

আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ বাঘলানের ৩ টি জেলার দখল নিয়েছে দেশটির সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ এবং উত্তরাঞ্চলীয় জোট প্রধান আহমাদ মাসুদের নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট। এই জেলাসমূহ হলো- পুল-ই-হেসার, দেহ সালাহ ও কাসান (বানু জেলা)।

আফগানিস্তানের বৃহত্তম বার্তাসংস্থা খামা প্রেস নিউজ এজেন্সি শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুক্রবার এই তিন জেলায় দখলদার তালেবান বাহিনীর সঙ্গে সংঘাত হয়েছে বিরোধী জোটের যোদ্ধাদের। এতে নিহত হয়েছেন ৪০ তালেবান , আহত হয়েছেন আরও ১৫ জন।

দেশটির সাবেক সরকারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বিসমিল্লাহ মোহাম্মদিও শুক্রবার এক টুইটে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। টুইটবার্তায় তিনি বলেন, ‘তালেবান সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করা আমাদের দায়িত্ব। পুল-ই-হেসার, দেহ সালাহ ও বানু জেলা তালেবান দখলমুক্ত হয়েছে। বাঘলান প্রদেশের এই তিন জেলার নিয়ন্ত্রণ এখন বিরোধী জোটের হাতে। আমাদের সংগ্রাম জারি আছে।’

বর্তমানে আফগানিস্তানের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় এলাকা পাঞ্জশির উপত্যকায় আত্মগোপনে আছেন বিসমিল্লাহ মোহাম্মদি। দেশটির সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহও আছেন একই অঞ্চলে।

গত মে মাস থেকে আফগানিস্তান দখলের অভিযান শুরু করা তালেবান বাহিনী রাজধানী কাবুলসহ ইতোমধ্যে দেশের ৩৪ টি প্রদেশের ২৮ টি নিজেদের দখলে আনতে সক্ষম হয়েছে। যে অঞ্চলগুলো এখনও তালেবান কব্জা করতে পারেনি তার মধ্যে অন্যতম পাঞ্জশির এলাকা।

তালেবানগোষ্ঠীর প্রধান বিরোধী শক্তি উত্তরাঞ্চলীয় জোটের ঘাঁটি এলাকা পাঞ্জশির অবশ্য বরাবরই দখলমুক্ত ছিল। ১৯৯৬ সালে যখন প্রথম তালেবান বাহিনী সরকার গঠন করেছিল, তখনও নিজের স্বাতন্ত্র্য বজায় রেখেছিল পাঞ্জশির।

শুক্রবার বাঘলানের সংঘাত সম্পর্কে তালেবান মুখপাত্রদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল খামা নিউজ প্রেস এজেন্সি, কিন্তু কেউই এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এদিকে, বৃহস্পতিবার রাজধানী কাবুলে রাত্রিকালীন কারফিউ জারি করেছে তালেবান বাহিনী। এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সম্পর্কে বলা হয়েছে, ‘অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাবুলের বাসিন্দাদের রাত ৯ টার পর বাড়ি থেকে বের না হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে।’

Related posts

তালেবানরা তৃতীয় বৃহত্তম শহর হেরাত দখলে নিল

News Desk

আফগান অস্থিরতায় ক্ষতির শঙ্কায় ভারত

News Desk

তালেবান কাবুল দখলে নিতেই নারী সাংবাদিকের পোশাক বদল!

News Desk