free hit counter
অস্থিতিশীলতার পর প্রথম প্রকাশ্যে সাবেক যুবরাজের সাথে জর্দানের বাদশাহ
আন্তর্জাতিক

অস্থিতিশীলতার পর প্রথম প্রকাশ্যে সাবেক যুবরাজের সাথে জর্দানের বাদশাহ

জর্দানের বাদশাহকে ক্ষমতাচ্যুত করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে গ্রেফতারি অভিযান ও সাবেক যুবরাজকে গৃহবন্দী করার জেরে দেশটিতে গত সপ্তাহের অস্থিতিশীলতার পর প্রথমবারের মতো সৎ ভাই ও সাবেক যুবরাজ শাহজাদা হামজা বিন হুসেইনের সাথে প্রকাশ্যে এসেছেন বাদশাহ আবদুল্লাহ বিন হুসেইন। রোববার দেশটির স্বাধীনতার শতবর্ষ উপলক্ষে এক আয়োজনে তারা প্রকাশ্যে মিলিত হয়েছেন বলে রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম জানায়।

রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে তাদের রাজধানী আম্মানের বাদশাহী রাগদান প্রাসাদে রাজকীয় সমাধিসৌধে সাবেক বাদশাহ হুসেইন বিন তালালের কবর জেয়ারত করতে দেখা যায়। এই সময় বাদশাহ আবদুল্লাহ বিন হুসেইন ও সাবেক যুবরাজ শাহজাদা হামজা বিন হুসেইন ছাড়াও সাবেক যুবরাজ ও বাদশাহর চাচা শাহাজাদা হাসান বিন তালাল ও বর্তমান যুবরাজ শাহজাদা হুসেইন বিন আবদুল্লাহ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে ৩ এপ্রিল বাদশাহ আবদুল্লাহকে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে শাহজাদা হামজাকে গৃহবন্দী করা হয় এবং রাজপরিবারের এক সদস্যসহ অন্তত ২০ জনকে আটক করা হয়। পরে ৫ এপ্রিল বাদশাহর প্রতি আনুগত্য জানিয়ে সাবেক এই যুবরাজ এক বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন।

সাবেক যুবরাজের বাদশাহর প্রতি আনুগত্য প্রকাশের পর ৭ এপ্রিল রাতে এক টেলিভিশন ভাষণে বাদশাহ আবদুল্লাহ বলেন, শাহজাদা হামজা তার তদারকিতেই নিজ প্রাসাদে পরিবারের সাথে রয়েছেন।

ওই ভাষণে তদন্তের ভিত্তিতে ‘ন্যায়বিচার ও স্বচ্ছতার’ সাথে বাদশাহকে ক্ষমতাচ্যুত করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আইনি প্রক্রিয়ায় অধীনে সম্পন্ন হবে জানান জর্দানের বাদশাহ।

জর্দানের সাবেক বাদশাহ হুসেইন বিন তালাল ১৯৯৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে ক্যান্সারে দীর্ঘদিন রোগভোগের পর ইন্তেকাল করলে বর্তমান বাদশাহ আবদুল্লাহ বিন হুসেইন সিংহাসনে বসেন। এই সময় তিনি তার সৎভাই হামজা বিন হুসেইনকে যুবরাজ হিসেবে নিয়োগ দেন। পরে ২০০৪ সালে এই মর্যাদা শাহজাদা হামজার কাছ থেকে কেড়ে নেয়া হয়। ওই সময় বাদশাহ আবদুল্লাহ বিবৃতিতে জানান, তিনি শাহজাদা হামজাকে দায়িত্ব মুক্তি দিচ্ছেন যাতে তিনি (শাহজাদা হামজা) কাজের স্বাধীনতা পান এবং বাদশাহর দেয়া যেকোনো মিশন বা দায়িত্ব স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে তিনি পালন করতে পারেন।

বর্তমানে জর্দানের যুবরাজ হিসেবে বাদশাহ আবদুল্লাহর বড় ছেলে, ২৬ বছর বয়সী তরুণ শাহজাদা হুসেইন বিন আবদুল্লাহ দায়িত্ব পালন করছেন।

সূত্র : মিডল ইস্ট আই