free hit counter
আন্তর্জাতিক

অন্ধকারে আইফেল টাওয়ার

আইফেল টাওয়ার

শীতে বিদ্যুৎ বাঁচাতে বিখ্যাত আইফেল টাওয়ারের আলো দ্রুত নিভিয়ে দেবে প্যারিস। শুধু তা-ই নয়, কমানো হচ্ছে সরকারি ভবনের আলোকসজ্জার সময় এবং ঘরের তাপমাত্রাও। গত মঙ্গলবার শহরটির মেয়র অ্যান হিডালগো এ কথা জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

রাশিয়ার গ্যাস সরবরাহ কমিয়ে দেয়া এবং জ্বালানির ক্রমবর্ধমান দামের কারণে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের উদ্যোগ নিয়েছে প্যারিস। অন্য প্রতিবেশীর মতো রুশ গ্যাসের ওপর অতটা নির্ভলশীল নয় ফ্রান্স। তবে রেকর্ড সংখ্যক পারমাণবিক চুল্লি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় স্বাভাবিক সময়ে বিদ্যুৎ রপ্তানিকারক দেশটি সম্প্রতি বিদ্যুৎ আমদানি করতে বাধ্য হয়েছে। এ অবস্থায় শিল্প, গৃহস্থালি ও সরকারি দপ্তরগুলোতে বিদ্যুতের ব্যবহার ১০ শতাংশ কমানোর লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমান্যুয়েল ম্যাক্রোঁ।

এ কারণে আইফেল টাওয়ারের মতো স্থাপনাগুলোতে আগেভাগেই নিভিয়ে দেয়া হবে আলো। বর্তমানে আইফেল টাওয়ারে সোনালি রঙের আলো জ¦লে রাত ১টা পর্যন্ত। এছাড়া প্রতি ঘণ্টায় একবার ২০ হাজার বাল্বের আলোয় ঝিলমিল করে ওঠে দৃষ্টিনন্দন স্থাপনাটি। মনোমুগ্ধকর এই দৃশ্য দেখতে প্রতি বছর প্যারিসে ছুটে যান বহু পর্যটক। কিন্তু তাদের হতাশ করে আগের তুলনায় দ্রুত বন্ধ হয়ে যাবে এই আলো-আঁধারির খেলা।

প্যারিসের মেয়র জানিয়েছেন, এখন থেকে রাত ১১টা ৪৫ মিনিটেই বন্ধ করে দেয়া হবে আইফেল টাওয়ারের আলো। এর ফলে স্থাপনাটিতে অন্তত চার শতাংশ বিদ্যুৎ সাশ্রয় হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

হিডালগো আরও জানিয়েছেন, আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে প্যারিসের সরকারি ভবনগুলোতে রাত ১০টা বাজলে সব আলো নিভিয়ে দেয়া হবে। পুলগুলোর তাপপাত্রা ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বদলে ২৫ ডিগ্রি রাখতে হবে। সরকারি বাড়িতে হিটিংও কমানো হবে। নতুন নিয়মে তা রাখা হবে ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। তবে নিরাপত্তার খাতিরে রাস্তার আলো বন্ধ করা হচ্ছে না।

ডি- এইচএ

Source link