free hit counter
বিনোদন

২০২২ সালে ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

ঘোষিত হলো ভারতের ৬৮তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্তদের তালিকা। এবার বেশ কয়েকটি আঞ্চলিক ভাষায় তৈরি সিনেমাকে আলাদা করে জাতীয় পুরস্কারে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। ননফিচার ও ফিচার দুই বিভাগেই আলাদা করে পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। ‘তানহাজি’ সিনেমার জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেলেন অজয় দেবগন। তাঁর সঙ্গেই যৌথভাবে এই পুরস্কার পেয়েছেন ‘সুরারই পট্টুরু’ সিনেমার নায়ক সুরিয়া। অজয় তৃতীয় ও সুরিয়া প্রথম জাতীয় পুরস্কার পেলেন। সেরা অভিনেতা ছাড়াও ‘সুরারই পট্টুরু’ ছয়টি জাতীয় পুরস্কার পেয়েছে। অন্যান্য পুরস্কার হলো সেরা সিনেমা, সুধা কঙ্গরা (সেরা পরিচালক), জিভি প্রকাশ (সেরা ব্যকগ্রাউন্ড মিউজিক), অপর্ণা বালামুরালি (সেরা অভিনেত্রী), শালিনি উষা নায়ার (সেরা চিত্রনাট্য), টুডি এন্টারটেইনমেন্ট (সেরা সিনেমা)। সেরা চিত্রনাট্য শাখায় তামিল ‘ম্যান্ডেলা’ সিনেমাটিও পেয়েছে জাতীয় পুরস্কার।

এ বছর ৩০টি ভাষায় ৩০৫টি সিনেমা জাতীয় পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিল। ২০টি ভাষায় ১৪৮টি সিনেমা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কৃত হয়েছে।

এ ছাড়া এ বছর উল্লেখযোগ্য পুরস্কার পেয়েছে:

সেরা সিনেমা (জনপ্রিয়): তানহাজি (হিন্দি)

সেরা গায়িকা: নানচাম্মা (মালয়ালম)

সেরা গায়ক: রাহুল দেশপান্ডে ((মারাঠি)

শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পী: অনীশ মঙ্গেশ গোসাভি ও আকাঙ্ক্ষা পিংলে (মারাঠি)

সেরা সহ-অভিনেত্রী: লক্ষ্মী প্রিয়া চন্দ্রমৌলি ((তামিল)

‘তানহাজি’ সিনেমার জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেলেন অজয় দেবগন। সেরা পার্শ্ব অভিনেতা: বিজু মেনন ((মালয়ালম)

সেরা সিনেমা (আঞ্চলিক): কালার ফটো (তেলুগু), শিভারঞ্জনিয়ুম ইনুম সিলা পেঙ্গালুম (তামিল), থিঙ্কলাজচা নিশ্চয়াম (মালয়ালম), গোস্থ এক পৈঠানিচি (মারাঠি), ডল্লু (কন্নড়), তুলসী দাস জুনিয়র (হিন্দি), অভিযাত্রিক (বাংলা), সেতু (অসমীয়া)।

সেরা সিনেমাটোগ্রাফি: (অভিযাত্রিক)

সেরা অ্যাকশন ডিরেকশন: একে আয়াপ্পানুম কোশিয়ুম

সেরা কোরিওগ্রাফি: নাট্যম (তেলুগু)

সেরা গানের কথা: সাইনা (হিন্দি)

সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন ‘সুরারই পট্টুরু’ সিনেমার নায়িকা অপর্ণা বালামুরালি সেরা সংগীত: আলা বৈকুণ্থাপুররামুলু (তেলুগু)

ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর: সুরারই পট্টুরু (তামিল)

সেরা মেকআপ আর্টিস্ট: নাট্যম (তেলুগু)

সেরা পোশাক ডিজাইনার: তানহাজি: দ্য আনসাং ওয়ারিয়র (হিন্দি)

সেরা প্রোডাকশন ডিজাইন: আনিস নাদোদি (মালয়ালম)

সেরা সম্পাদনা: শ্রীকর প্রসাদ ((তামিল)

Source link