Image default
বিনোদন

হেমা মালিনী ও ধর্মেন্দ্রর দেখা হয় না প্রায় বছর খানেক

সম্পর্কের জটিলতা নয়। বরং করোনা ক্রমশ অনেককে একা করে দিচ্ছে। বলিউডেও থাবা বসিয়েছে এ ভাইরাস। একের পর এক তারকা করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। একা একা নিভৃতবাসে কাটাতে হচ্ছে সবাইকে।

করোনা দূরত্ব বাড়িয়েছে হেমা মালিনী ও ধর্মেন্দ্রর মধ্যে। প্রায় বছর খানেক দেখা নেই এই ‘লিভিং লেজেন্ড’ দম্পতির।

এমনিতেই এই তারকা-দম্পতি একসঙ্গে থাকেন না। ধর্মেন্দ্র মুম্বাই থেকে বেশ খানিকটা দূরে নিজের ফার্মহাউসে থাকেন। শহুরে কোলাহল থেকে একেবারেই দূরে, নিরিবিলিতে। করোনার আগে তবু মাঝে মাঝেই ধর্মেন্দ্র হেমা মালিনীর বাড়িতে আসতেন। হেমাও যেতেন স্বামীর বাড়ি। একসঙ্গে কোয়ালিটি সময় কাটাতেন তারা। কিন্তু করোনা তাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরি করে দিল।

করোনার ভয়ে বাড়িতে নিভৃতবাসে দিন কাটান এখন ধর্মেন্দ্র। কোথাও যান না। হেমা মালিনীর সঙ্গেও আর দেখা করতে আসেন না। প্রায় এক বছর হয়ে গেল দুজনের দেখা নেই। যেটুকু কথা হয় ফোনে।

ধর্মেন্দ্রর সঙ্গে দেখা না হলেও নিশিন্তে আছেন হেমা মালিনী। তিনি বলেন, “এখন যা পরিস্থিতি আমাদের একসঙ্গে কাটানোর থেকে উনার সুস্থ থাকাটা আমার কাছে অনেক বেশি গুরত্বপূর্ণ। বাড়িতে থাকাটাই এখন তার জন্য ভালো। আমরা এখন যে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে চলেছি, একশো বছর আগে মানুষকে এরকম অবস্থার মধ্যে পড়তে হত। আমাদের সভ্যতাকে বাঁচিয়ে রাখতে অনেক বেশি সচেতন হলে হবে। এমনকি ত্যাগও করতে হবে।”

ব্যক্তিগত ব্যস্ততা পাশাপাশি রাজনীতিতেও সময় দেন হেমা। তবে ধর্মেন্দ্র পুরোটা সময়ই নিভৃতবাসে আছেন।

Related posts

অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীর বাবার প্রয়াণ

News Desk

ঈদের ছুটিতে মহিলা সমিতির মঞ্চে প্রাঙ্গণেমোরের ‘অভিনেতা’

News Desk

লকডাউন চলাকালে স্টার সিনেপ্লেক্স বন্ধ থাকবে

News Desk

Leave a Comment