free hit counter
বিনোদন

শিক্ষার্থীদের জন্য অর্ধেক দামে ‘বীরকন্যা প্রীতিলতা’র টিকিট

ব্রিটিশ–বিরোধী বিপ্লবী প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারকে নিয়ে এই প্রথম কোনো চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হয়েছে। কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের উপন্যাস ‘ভালোবাসা প্রীতিলতা’ অবলম্বনে ‘বীরকন্যা প্রীতিলতা’ চলচ্চিত্রটি বানিয়েছেন প্রদীপ ঘোষ। ২০১৯-২০ অর্থবছরে সরকারি অনুদান পায় সিনেমাটি। আগামী ২৫ নভেম্বর ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্স, ব্লকবাস্টার সিনেমাস এবং চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিনে সিনেমাটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। 

শিক্ষার্থীদের জন্য বীরকন্যা প্রীতিলতার হাফপাস চালু করা হয়েছে। আজ রোববার জাতীয় জাদুঘরে ছবিটির মুক্তি উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানেই এই ঘোষণা দেওয়া হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে নির্মাতা প্রদীপ ঘোষ বলেন, ‘নতুন প্রজন্ম যেন প্রীতিলতার আত্মদানের বীরত্বগাথা জানতে পারে, নিজেদের হৃদয়ে শক্তি ও সাহস সঞ্চয় করতে পারে— এ কারণেই এই চলচ্চিত্রটিতে বেশি করে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ বাড়াতে চাচ্ছি আমরা। তাই প্রচারণায় শিক্ষার্থীদের জন্য হাফপাস চালু করেছি। এরই মধ্যে আমরা ১ লাখ কুপন ছাপিয়েছি। সেগুলো বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের দেওয়া হচ্ছে। কুপন নিয়ে হলে গেলেই অর্ধেক দামে সিনেমাটি দেখতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।’ এ ছাড়া বিকল্প উপায়েও সিনেমাটি দেখানোর ব্যবস্থার কথা ভাবছেন নির্মাতা। 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। তিনি বলেন, ‘ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশ নিয়ে প্রীতিলতা নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। যে ইউরোপিয়ান ক্লাবটি তখন চট্টগ্রামে ছিল, সেই ক্লাবের দেয়ালে, দরজার পাশে লেখা ছিল—কুকুর ও ভারতীয়দের প্রবেশ নিষেধ। এটা প্রীতিলতাকে অনেক বেশি উদ্বুদ্ধ করেছিল ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে অংশ নিতে। প্রীতিলতাকে নিয়ে উপন্যাস লেখার সময় আমি ক্লাবটি দেখতে গিয়েছিলাম। প্রদীপ ঘোষ আমার উপন্যাসটি নিয়ে চলচ্চিত্র তৈরি করেছে, এটা আমার জন্য অনেক বড় কৃতজ্ঞতার জায়গা। আমার মনে হয়, যে কোনো কলেজ-স্কুলে সিনেমাটি দেখানোর ব্যবস্থা করা যেতে পারে। কীভাবে সেই সময় ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে আমাদের ছেলেমেয়েরা যুক্ত হয়েছিল, এবং আমাদের স্বাধীনতার স্বপ্নকে বড় করে দেখেছিল; এসব কাহিনি আমাদের প্রজন্মকে আলোকিত করবে।’

জাতীয় জাদুঘরে ছবিটির মুক্তি উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। ছবি: নির্মাতার সৌজন্যে প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের প্রথম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চট্টগ্রামের ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে সিনেমার প্রচারণার কাজ শুরু হয়। এরপর ঢাকার প্রচারণা শুরু হয় প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের স্মৃতিবিজড়িত ইডেন কলেজ থেকে। আরও অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সিনেমাটির প্রচারণা চলছে। 

সিনেমাটিতে প্রীতিলতা চরিত্রে অভিনয় করেছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা, বিপ্লবী রামকৃষ্ণ বিশ্বাসের চরিত্রে মনোজ প্রামাণিক এবং মাস্টারদা সূর্যসেন চরিত্রে অভিনয় করেছেন কামারুজ্জামান তাপু।

Source link

Bednet steunen 2023