Image default
বিনোদন

ধর্মেন্দ্র-শাবানা আজমির মতো চুমুর দৃশ্য করতে চান হেমা মালিনিও

করণ জোহর পরিচালিত সিনেমা ‘রকি অওর রানি কি প্রেম কাহানি’ মুক্তি পেয়েছে গত ২৮ জুলাই। বক্স অফিসে এখনো ভালো চলছে রণবীর সিং ও আলিয়া ভাট অভিনীত সিনেমাটি। বাঙালি-অবাঙালি দুই পরিবারের গল্প-প্রেমের পাশাপাশি সিনেমাটিতে দুই বর্ষীয়ান অভিনেতা ধর্মেন্দ্র ও শাবানা আজমির চুম্বনদৃশ্য নিয়ে হয়েছে আলোচনা–সমালোচনা। এবার এক সাক্ষাৎকারে ধর্মেন্দ্রপত্নী হেমাকে বলতে শোনা গেল, সুযোগ পেলে তিনিও পর্দায় চুমু খেতে পিছপা হবেন না!

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ধর্মেন্দ্র ও শাবানা আজমির মতো পর্দায় চুম্বনে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবেন কি না—এমন প্রশ্ন করা হলে হেমা মালিনি জবাব দেন, ‘অবশ্যই। কেন করব না? যদি সেটা সিনেমার সঙ্গে সম্পর্কিত থাকে। যদি চিত্রনাট্যের সঙ্গে যায়, তাহলে আমিও চুমু খাব।’ যদিও হেমা জানান, করণ জোহরের ‘রকি অওর রানি কি প্রেম কাহানি’ সিনেমাটি এখনো দেখে উঠতে পারেননি তিনি।

হেমা মালিনি। ছবি: সংগৃহীত এর আগেও শাবানা আর ধর্মেন্দ্রর চুমু নিয়ে প্রশ্ন করা হলে হেমা প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছিলেন, ‘আমি নিশ্চিত যে দর্শকেরা সিনেমাটি পছন্দ করেছে। আমি ধর্মাজির জন্য খুব খুশি, কারণ তিনি ক্যামেরার সামনে থাকতে পছন্দ করেন। এটা তাঁর খুব পছন্দের।’

ধর্মেন্দ্র ও হেমা মালিনি। ছবি: সংগৃহীত এর আগে নিউজ ১৮কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ধর্মেন্দ্র চুম্বনের বিষয়ে বলেন, ‘আমি শুনছি যে শাবানা ও আমার চুম্বন দৃশ্য দর্শকদের অবাক করে দিয়েছে এবং একই সঙ্গে তাঁরা এটির প্রশংসাও করেছেন। আবার অনেকে সমালোচনাও করেছেন। আমার মনে হয় মানুষ এটা আশা করেনি, তাই এ দৃশ্য নিয়ে আলোচনা চলছে।’

‘শোলে’, ‘রাজিয়া সুলতান’ এবং ‘সীতা অর গীতা’র মতো ছবিতে ধর্মেন্দ্রর সঙ্গে অভিনয় করেছেন হেমা। ১৯৮০ সালে দুজনের বিয়ে হয়। তাঁদের দুই মেয়ে এশা ও অহনা দেওল। এর মধ্যে এশা কাজ করেছেন বলিউডে। হেমা মালিনিকে শেষবার পর্দায় দেখা গেছে ২০০০ সালে সিমলা মিরচিতে।

Source link

Related posts

নৌকায় করে অনিশ্চিত জীবনযাত্রা ছিল অস্কারজয়ী কোয়ানের পরিবারের

News Desk

নতুন গানে ঈদ মাতালেন জেমস

News Desk

চার দিন ধরে নিখোঁজ, জঙ্গলে গাড়ির পাশে পড়ে ছিল অভিনেতার মরদেহ

News Desk

Leave a Comment