free hit counter
বিনোদন

দুরন্ত টিভিতে বাংলা ভাষায় ‘প্রিন্সেস এমি’ ও ‘ড্রাগন হান্টার্স’

প্রতি সপ্তাহে জনপ্রিয় বিদেশি সিনেমা বাংলা ভাষায় রূপান্তর করে প্রচার করে দুরন্ত টিভি। এর ধারাবাহিকতায় এ সপ্তাহেও থাকছে দুটি সিনেমা। শিশু-কিশোরদের পছন্দের দুই সিনেমা ‘ড্রাগন হান্টার্স’ ও ‘প্রিন্সেস এমি’ বাংলা ভাষায় নিয়ে আসছে দুরন্ত টিভি। আজ শুক্রবার ও আগামীকাল শনিবার বেলা ৩টায় প্রচারিত হবে সিনেমা দুটি।

প্রিন্সেস এমি
কান্দিস রাজ্যের ছোট্ট প্রিন্সেস এমি। তার একটি বিশেষ ক্ষমতা আছে, যা কান্দিস রাজ্যের আর কারোরই নেই—ঘোড়ার সাথে কথা বলতে পারে সে। বন্ধু, পরিবার, আস্তাবলের চমৎকার সব ঘোড়া—সব মিলে তার জীবন ছিল চমৎকার। তারপর একদিন আসে তার চাচাতো বোন গিজানা। সে রাজকুমারী এমির প্রতি হিংসাপরায়ণ হয়ে তার জীবনকে দুর্বিষহ করে তোলে। ফলে রাজকুমারী হিসেবে অভিষিক্ত হওয়া এবং দৈববলে পাওয়া ক্ষমতা দুই-ই রক্ষা করতে কঠিন সংগ্রাম করতে হয় এমিকে।

দুরন্ত টিভির ভাষান্তরিত সিনেমা ‘প্রিন্সেস এমি’ প্রচারিত হবে আজ শুক্রবার বেলা ৩টায়।

‘ড্রাগন হান্টার্স’ সিনেমার দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত ড্রাগন হান্টার্স
ওয়ার্ল্ড গবলার ড্রাগনদের মধ্যে সবচেয়ে বিপজ্জনক ও ভয়ংকর প্রাণী। প্রতি বিশ বছরে সে একবার জেগে ওঠে সমস্ত জীবন্ত প্রাণিকে হত্যা করে। বহু বছর আগে লর্ড আর্নল্ড ওয়ার্ল্ড গবলারকে পরাজিত করতে গেয়ে নিজের ক্ষমতা, দৃষ্টিশক্তি ও সৈন্যবাহিনী হারিয়ে ফিরে আসে। এবার ওয়ার্ল্ড গবলারকে পরাজিত করে দুর্গ ও মানুষদের নিরাপদ করতে নিয়োগ দেওয়া হয় গুইজডো আর লিয়াং স্যু নামক দুই তরুণ ড্রাগন শিকারিকে।

তাদের এই অভিযানে সঙ্গী হয় লর্ড আর্নল্ডের বুদ্ধিমান ও দৃঢ় ভাতিজি জো। ওয়ার্ল্ড হান্টারকে পরাজিত করতে এই ড্রাগন শিকারি দলকে পাড়ি জমাতে হয় পৃথিবীর শেষ প্রান্তে, যেখানে ভয়ংকর ড্রাগনটি এখনো ঘুমাচ্ছে। ঘুম থেকে জেগে ওঠার আগেই তাকে পরাজিত করতে হবে শিকারি দলের অথবা পরাজিত হয়ে নিজেদের মৃত্যু দেখতে হবে।

ড্রাগন শিকারের উত্তেজনাপূর্ণ কাহিনি নিয়ে দুরন্ত টিভির ভাষান্তরিত সিনেমা ‘ড্রাগন হান্টার্স’ প্রচারিত হবে ৩ সেপ্টেম্বর বেলা ৩টায়।

Source link