Image default
বিনোদন

দীঘি ও আফ্রিদির সম্পর্ক কি?

চলতি বছরেই নায়িকা হিসেবে অভিষেক হয়েছে একসময়ের জনপ্রিয় শিশুশিল্পী প্রার্থনা ফারদীন দীঘির। কিন্তু তিনটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া এই অভিনেত্রী ছোটদের চরিত্রে যতটা সাড়া ফেলেছিলেন, নায়িকা হিসেবে ততটাই ফ্লপ। তবে তার পরও তিনি বছরজুড়ে আলোচনায় অন্য কারণে।

টিকটকের জগতে বেশ আলোচিত নাম দীঘি। মাই টিভি মালিকের ছেলে তথা ইউটিউবার তৌহিদ আফ্রিদির সঙ্গে বেশ কিছু টিকটক করেছেন তিনি। যার সুবাদে গুঞ্জন, এই জুটির মধ্যে বিশেষ কোনো সম্পর্ক রয়েছে। সম্প্রতি একটি ভিডিও সাক্ষাৎকারে সেই বিষয়টা পরিষ্কার করলেন দীঘি।

অভিনেত্রী দাবি করেন, ‘তৌহিদ আফ্রিদি আমার খুব ভালো ফ্রেন্ড। ওর সঙ্গে আমার ‘তুই তুকারি’ সম্পর্ক। যদিও আমাদের দেখা কম হয়েছে। আমি যখনই ওকে ফোন দেই, ও ফোন ধরে আগে আমাকে তুই বলে একটা গালি দেয়। ওর সঙ্গে আমার এরকম একটা সম্পর্ক। সো, ফ্রেন্ডের চেয়ে বিশেষ কিছু হওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।’

তবে শুধু তৌহিদ আফ্রিদি নয়, দীঘির সঙ্গে ইতোমধ্যে নাম জড়িয়েছে আরও একাধিক যুবকের। এ প্রসঙ্গে দীঘির ব্যাখ্যা, ‘আসলে নামগুলো জানতে পারলে সুবিধা হতো। তাহলে শিওর হতে পারতাম যে, কাদের সঙ্গে আমার নাম জড়াচ্ছে, কেন জড়াচ্ছে। তাই আপাতত আমি ধরে নিয়েছি, নায়িকা হলে একটা ট্রেন্ড হয়ে গেছে যে, তাদের একটা প্রেমের গুঞ্জন থাকতে হবে।’

কিন্তু স্ক্যান্ডাল না থাকলে তো বর্তমান যুগে ভাইরাল হওয়া যায় না। এই ফর্মুলা বিশ্বাস করেন না দীঘি। তিনি বলেন, আমার তো স্ক্যান্ডাল নেই। আমি কি জনপ্রিয় নই? আমি বিশ্বাস করি, জনপ্রিয় হতে হলে স্ক্যান্ডাল নয় বরং ট্যালেন্ট আর কনফিডেন্স থাকতে হবে।

নায়িকা হিসেবে অভিষেক হওয়ার পর একাধিক সাক্ষাৎকারে হাজির হয়ে দীঘি দাবি করেছেন, তার কোনো বয়ফ্রেন্ড নেই। কিন্তু কেন? দীঘির জবাব, ‘সময় কই? ক্যারিয়ার নিয়ে এত বিজি যে, একটা সিরিজ দেখতে পারি না! বাংলাদেশে নতুন কোন ওয়েব ফিল্ম আসছে, এটাও ঠিকমতো জানতে পারি না। বয়ফ্রেন্ড কেমনে থাকবে। ওইটার জন্য তো সময় লাগে। ওইটা এক্সট্রা কারিকুলাম এক্টিভিটিস। ওইটার জন্য আপাতত সময় নেই, আপাতত মেইন সাবজেক্ট পড়ি, তারপরে দেখা যাবে।’

মেইন সাবজেক্ট বলতে যে দীঘি এখানে অভিনয়টাকে বুঝিয়েছেন, সেটা পরিষ্কার। শিশুশিল্পী হিসেবে যে খ্যাতি কুড়িয়েছেন, তার জেরে তিনি এখনো তারকা। এই লেভেলে এসেই অনেকে তারকা তারকা ভাব নেন, কারও ফোন ধরতে চান না। অতিরিক্ত ব্যস্ততা দেখান। এ ক্ষেত্রে দীঘি কেমন?

অভিনেত্রী বলেন, ‘এটা সত্য যে আমার এখন যতটা জনপ্রিয়তা আছে, এই লেভেলে আসলে অনেকেই তারকা হওয়ার সুবাদে একটা ভাব নেয়। কিন্তু আমি এখনো যেহেতু সেই ভাবটা নিতে পারিনি, ভবিষ্যতেও পারব না। যত বড় তারকাই হই। কারণ, এই শিক্ষাটাই আমি পাইনি। এটা কখনো সাপোর্টও করি না, যে বড় কেউ হলেই ভাব নিতে হবে। আমি একটা টাইমে শুধু ফোন ধরি না, যখন শুটিংয়ে থাকি। ওই সময় আমি কারও ফোনই ধরি না।’

প্রসঙ্গত, চলতি বছরে দেলোয়ার জাহান ঝন্টু পরিচালিত ‘তুমি আছো তুমি নেই’ ছবির মাধ্যমে নায়িকা হিসেবে অভিষেক হয়েছে সুব্রত ও দোয়েল দম্পতির মেয়ে দীঘির। এরপর মুক্তি পায় তার আরও এক ছবি ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’। কিন্তু কোথাও আগের দীঘিকে খুঁজে পায়নি দর্শক। তাই এই নায়িকা আপাতত ব্যস্ত নিজেকে তৈরি করার কাজে।

Related posts

ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় যারা

News Desk

মা হলেন অভিনেত্রী নাবিলা

News Desk

১২ কোটি ২০ লাখ টাকার সরকারি অনুদান পাচ্ছে ২০ চলচ্চিত্র

News Desk

Leave a Comment