বলিউডের অনেক অভিনেত্রীরাই ফিটনেস ঠিক রাখতে ইয়োগা বা যোগাব্যায়ামকেই প্রাধান্য দিয়ে থাকে। খুব সহজেই ওজন কমানো যায় ইয়োগার মাধ্যমে। এ ছাড়াও ইয়োগা করলে মানসিকভাবেও সুস্থ থাকা যায়। শুধু অভিনেত্রীরাই কেনো, বর্তমানে বিশ্বের লাখ লাখ মানুষ যোগব্যায়ামের মাধ্যমে ফিটনেস ধরে রাখছেন।

করোনা মহামারিতে যারা জিমে গিয়ে ওয়ার্কআউট করতে পারছেন না। তারা চাইলে ঘরে বসেই শরীর ফিট রাখতে যোগব্যায়াম করতে পারবেন। বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজও বাড়িতেই ইয়োগা করতে ভালবাসেন।

এই নায়িকা ফিটনেস দেখলে যে কেউই আকৃষ্ট হবেন। আর তাই তো তার ভক্তকূলের প্রশ্ন কীভাবে জ্যাকলিন তার ফিটনেস ধরে রাখেন? সম্প্রতি নায়িকা নিজ বাড়িতে কীভাবে যোগব্যায়াম করেন, সে রুটিন একটি ক্র্যাশ কোর্সের মাধ্যমে সবার সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন। ২১শে জুন আন্তর্জাতিক ইয়োগা দিবসে এই রুটিনটি ফলো করে বাড়িতেই করে ফেলতে পারেন আপনার ইয়োগা!

জ্যাকলিনের ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইলে শেয়ার দেওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, গোলাপি রঙা পোশাক পড়ে তিনি যোগব্যায়ামের বিভিন্ন পোজ অনুশীলন করছেন। ভিডিও পোস্টের ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘আপনার মেরুদণ্ডকে সবসময় সুস্থ ও খুশী রাখুন।

ইয়োগার এই কৌশলগুলো আমার যেকোনো সময় যেকোনো জায়গায় করতে ভালো লাগে।’ আরেকটি ভিডিওর ক্লিপে তিনি লিখেন, ‘প্রাণভরে নিঃশ্বাস নেয়ার সময় অবশ্যই শ্রুতিমধুর ও শান্তির কোনো গান শুনুন।’

তার এই শেয়ার করা পোস্ট ও টিপসগুলোতে সাধুবাদ জানিয়েছেন অগণিত ভক্তকূল। সেইসঙ্গে এতো সুন্দর ও আকর্ষণীয় ফিটনেসের জন্যও প্রশংসা কুড়িয়েছেন নায়িকা।

জ্যাকলিনের করা ইয়োগা ভিডিওগুলো খুবই সহজ ও কার্যকরী। অনেক ব্যস্ততার মাঝেও চাইলে এই ইয়োগা অনুশীলনগুলো করে নেয়া যাবে মাত্র ১০-১৫ মিনিটের মধ্যে। আর যদি কারো লক্ষ্য থাকে একেবারে ঝরঝরে ফিটনেসের তাহলে আজই শুরু করে দিতে পারেন যোগব্যায়ামের এই অনুশীলনগুলো। মনে রাখতে হবে, এক্ষেত্রে প্রতিদিন নিয়ম করে অনুশীলন করতে হবে।

শ্রীলঙ্কান এই অভিনেত্রীকে তার বডি ফিটনেসের জন্য বলিউডের অন্যতম আইকন হিসেবে ধরা হয়। মালাইকা আরোরা, শিল্পা শেঠি, সারা আলি খান, জানভি কাপুরের মতো জ্যাকলিন ফার্নান্দেজও তাদের ভক্তদের সঙ্গে প্রায়ই ফিটনেস সেশন নিয়ে থাকেন।

শুধু ইয়োগা নয়, জিমনেস্টিকস, পাইরেটস, বিভিন্ন ধরণের নাচ এসবেও বেশ দক্ষ জ্যাকলিন। জিমনেস্টিকস ট্রেনিং নিয়ে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমি সপ্তাহে তিনবার কুলদীপের (সাশী) সঙ্গে ট্রেনিং করি এবং সবসময় চেষ্টা করি অনলাইনে এসব শেয়ার করতে। কারণ আমি মনে করি এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ তাদের জন্য; যারা এগুলো শিখতে চান। চাইলে আজ থেকেই ঘরে অবসর সময়ে ফিট থাকতে এ অনুশীলনগুলো শুরু করতে পারেন।

Related posts

মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন বিবাহিতরাও

News Desk

২০২১ অস্কারে সেরা অ্যানিমেটেড ফিচার ফিল্মের শিরোপা পেল পিক্সারের ‘সোল’

News Desk

সংসার ও পেশার ভেতর সামঞ্জস্য রেখে চলবেন মিথিলা

News Desk

Leave a Comment