free hit counter
বিনোদন

কালজয়ী সুরকার আলম খান মারা গেছেন

সকাল থেকেই বিনোদন অঙ্গনে একের পর এক শোকের খবর। বরেণ্য অভিনয়শিল্পী শর্মিলী আহমেদ আজ মারা গেছেন ভোরে। এই শোকের মাঝেই সংস্কৃতি অঙ্গনে এলো আরও এক শোকের খবর। সংগীত পরিচালক আলম খান নেই। আজ বেলা ১১টা ৩২ মিনিটে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাঁর পুত্র ও সংগীত পরিচালক আরমান খান। তিনি দীর্ঘদিন ক্যানসারসহ নানা রোগে ভুগছিলেন।

‘ওরে নীল দরিয়া’, ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস দম ফুরাইলে ঠুস’, ‘আমি রজনীগন্ধা ফুলের মতো গন্ধ বিলিয়ে যাই’, ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘কি জাদু করিলা পিরিতি শিখাইলা’, ‘তুমি যেখানে আমি সেখানে’, ‘সবাই তো ভালবাসা চায়’ এমন অসংখ্য জনপ্রিয় গানের সুর করেছেন আলম খান।

বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনে তাঁকে বলা হয় সুরের জাদুকর। তাঁর সুরে গান গেয়ে তারকাখ্যাতি পেয়েছেন অনেক শিল্পী। পপসম্রাট আজম খানের বড় ভাই তিনি। ১৯৪৪ সালের ২২ অক্টোবর সিরাজগঞ্জের বানিয়াগাথি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। সংগীতজ্ঞ আলম খানের পুরো নাম খুরশিদ আলম খান।

আলম খান ১৯৪৪ সালে সিরাজগঞ্জের বানিয়াগাতি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা আফতাব উদ্দিন খান ছিলেন সেক্রেটারিয়েট হোম ডিপার্টমেন্টের অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অফিসার এবং মা জোবেদা খানম ছিলেন গৃহিণী। গুলবানু খানের সঙ্গে দাম্পত্য জীবনে দুই ছেলে আরমান খান ও আদনান খান এবং এক কন্যা আনিকা খানের জনক আলম খান।

আলম খান ছোটবেলা থেকে গানের প্রতি ভালোবাসা ছিলো অন্যরকম। সেই জের ধরেই গানের ভুবনে প্রবেশ। ১৯৭০ সালে আবদুল জব্বার খানের ‘কাঁচ কাটা হীরে’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে সংগীত পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি। তারপর অসংখ্য সিনেমার সংগীত পরিচালনা করেন। সৃষ্টি করেন একের পর এক শ্রুতিমধুর ও জনপ্রিয় গান।

আলম খানের শ্রোতাপ্রিয় ২০ গান:

১. এক চোর যায় চলে

২. তুমি আছ সবি আছে

৩. চাঁদের সাথে আমি দেব না

৪. ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে

৫. সবার জীবনে প্রেম আসে

৬. তেল গেলে ফুরাইয়া

৭. ভালোবেসে গেলাম শুধু

৮. কী জাদু করিলা

৯. তোমরা কাউকে বোলো না

১০. আমি একদিন তোমায় না দেখিলে

১১. বুকে আছে মন

১২. কারে বলে ভালোবাসা

১৩. তোরা দেখ দেখ রে চাহিয়া

১৪. জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প

১৫. চক্ষু দিয়া দেখতাছিলাম

১৬. তুমি ছিলে মেঘে ঢাকা চাঁদ

১৭. এখানে দুজনে নিরজনে

১৮. মনে বড় আশা ছিল

১৯. কাল তো ছিলাম ভালো

২০. আমি তোমার বধূ

Source link