free hit counter
বিনোদন

‘একাডেমির সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছি’

এবারের অস্কার-মঞ্চে কৌতুকাভিনেতা ক্রিস রককে চড় মারায় অস্কারে ১০ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে অভিনেতা উইল স্মিথকে। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, একাডেমির এমন সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছেন অভিনেতা। উইল স্মিথ বলেছেন, ‘আমি একাডেমির সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছি এবং এই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই।’ 

এর আগে অস্কার প্রদানকারী সংস্থা একাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ৯৪তম অস্কার অনুষ্ঠানের মঞ্চে অগ্রহণযোগ্য ও খারাপ আচরণ করেছেন উইল স্মিথ। এ জন্য ৮ এপ্রিল ২০২২ থেকে পরবর্তী ১০ বছর অস্কারের আসর ও একাডেমির অন্যান্য আয়োজনে অংশ নিতে পারবেন না এই অভিনেতা। তবে এবারের আসরে সেরা অভিনেতার পুরস্কারজয়ী উইল স্মিথের অস্কার কেড়ে নেওয়া কিংবা পরবর্তী সময়ে মনোনয়ন দেওয়া বিষয়ে কিছু জানায়নি একাডেমি। 

অস্কারের মঞ্চে ক্রিস রককে চড় মারেন উইল স্মিথ। ছবি: রয়টার্স উল্লেখ্য, এবারের অস্কার আসরে সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন উইল স্মিথ। পুরস্কার অনুষ্ঠানে পাশে ছিলেন তাঁর স্ত্রী জাডা। ২০১৮ সালে নিজের কঠিন অসুখের কথা জানান তিনি। তাঁর সব চুল পড়ে যায়। অস্কারের মঞ্চে জাডার চুল নিয়ে রসিকতা করেন সঞ্চালক কৌতুক অভিনেতা ক্রিস রক। রসিকতার জবাবে রককে চড় মারেন উইল স্মিথ। পরে অবশ্য নিজের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান উইল। 

ইনস্টাগ্রামে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে উইল স্মিথ লেখেন, ‘ক্রিস, তোমার কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইছি। আমি সীমা লঙ্ঘন করেছি, ভুল করেছি। যা করেছি, তা অন্যায় এবং তার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী। আমি অত্যন্ত লজ্জিত। আমার চরিত্রের সঙ্গে এমন কাজ মেলে না।’ 

স্মিথ আরও লেখেন, ‘কৌতুক আমাদের পেশার অংশ। কিন্তু স্ত্রীর শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে রসিকতা কোনোভাবেই মেনে নিতে পারিনি। ফলে আবেগপ্রবণ হয়ে গিয়েছিলাম। তাই প্রতিক্রিয়া জানিয়েছি, যা ঠিক হয়নি।’

Source link