free hit counter
ঋষি কাপুরের মৃত্যুবার্ষিকীতে রিদ্ধিমার আবেগঘন স্মৃতিচারণ
বিনোদন

ঋষি কাপুরের মৃত্যুবার্ষিকীতে রিদ্ধিমার আবেগঘন স্মৃতিচারণ

বাবার সঙ্গে মেয়ের সম্পর্ক এই পৃথিবীর অন্যতম এক মধুর সম্পর্ক। ঋষি কাপুরের মৃত্যুর এক বছর পর মেয়ে রিদ্ধিমা কাপুর আবেকপ্রবC হয়ে বাবার স্মৃতিচারণ করেছেন। সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করেছেন বাবার মেয়ের সুন্দর মুহূর্তের দুটি ছবি।

গত বছর ৩০শে এপ্রিল মারণ ব্যাধি ক্যান্সারের কাছে পরাজিত হয়ে ঋষি কাপুর ৬৭ বছর বয়সে আমদের ছেড়ে চলে গিয়েছেন। বাবার মৃত্যুবার্ষিকীতে মেয়ে রিদ্ধিমা আবেগপ্রবণ হয়ে নিজের ইনস্টাগ্রামে দুটি ছবি পোস্ট করেছেন। একটি ছবিতে ছোট্ট রিদ্ধিমা বাবার কলে আছেন। অপর ছবিতে রিদ্ধিমা বাবা ঋষির বুকে মাথা দিয়ে আছেন। বাবা দুই হাত দিয়ে মেয়েকে আগলে আছেন দুটি ছবিতেই। বাবা মায়ের কাছে সন্তান আজীবনই ছোট থাকে, তাই বড় হয়ে যাওয়ার পরও আগলে রাখে সন্তানকে। এই ছবি দুটি তারই উদাহরণ।

এই দুই ছবি পোস্টের সঙ্গে রিদ্ধিমা বাবাকে কতটা মিস করেন এখনও সে কথাও লিখেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘যতদিন না আমাদের আবার দেখা হচ্ছে আমরা তোমায় নিয়ে কথা বলি, সর্বক্ষন তোমার অভাব অনুভব করি। তুমি কখন এক মুহূর্তের জন্যে আমাদের মধ্যে থেকে হারিয়ে যাওনি, আর হারাবেও না। আমাদের হৃদয়ে তুমি চিরদিন একই ভাবে রয়ে যাবে। জীবনের প্রতিটা সিদ্ধান্তে তুমি আজও আমাদের সঠিক পথ দেখিয়ে আসছ’।

‘বাবা আমি তোমায় ভীষণ ভালবাসি’ এই বলেই রিদ্ধিমা শেষ করেছেন তার লেখা। প্রয়াত ঋষি কাপুরের স্ত্রী জনপ্রিয় নব্বই দশকের অভিনেত্রী নিতু কাপুর ২০১৮ সালে একটি টেলিভিশন শোয়ে এসে বলেছিলেন, ঋষি তার সন্তানদের মধ্যে মেয়েকেই সব থেকে বেশি ভালোবাসেন। তাই মেয়ের বিয়ে হয়ে যাওয়ার পরও নিত্য মেয়ের সঙ্গে বাবার ভিডিও কলে কথা চলত। ঋষির মৃত্যুর এক বছর পরও বাবাকে এক মুহুর্তের জন্যেও ভুলতে পারেনি মেয়ে রিদ্ধিমা। সেই অনুভূতিই উঠে এসেছে তার লেখায়। বাবার কাছে মেয়ে হয় তার সবচেয়ে অমূল্য রত্ন। আর সেই রত্নকে ফেলে চিরদিনের মত চলে গিয়েছেন আমাদের সকলের প্রিয় ঋষি কাপুর। তার পরিবারের কাছে যেমন তিনি আজীবন রয়ে যাবেন, একটি ভাবে বলিউডের প্রথম চকোলেট বয় রয়ে যাবেন আমাদের স্মৃতিতে, তার অসাধারণ শিল্প অভিনয় গুনের জন্যে।

Related posts

আলিয়ার অভিনয় নিয়ে কঙ্গনার কটাক্ষ

News Desk

বলিউডের সিনেমায় পা রাখছেন অনির্বাণ

News Desk

করোনায় আক্রান্ত অর্জুন

News Desk