Image default
বিনোদন

আজ থেকে শুরু হচ্ছে ৮০তম ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসব

নব্বই পেরিয়ে বয়স একানব্বই। ১৯৩২ সালে সফর শুরু হয়েছিল ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবের। রাজনৈতিক ডামাডোলে ধারাবাহিকতা রক্ষা হয়নি। না হলে এবার ৯১তম আসর বসতে পারত। তবু প্রাচীন বটের তলে বায়োস্কোপ দেখার মতো, এখনো চলচ্চিত্র দেখিয়ে চলছে ইতালির উত্তরের শহরটি। বিশ্বের প্রাচীন এই উৎসবের ৮০তম আসর দোরগোড়ায়। লাল গালিচায় তারার হাঁট বসবে আজ ৩০ আগস্ট বুধবার থেকে।

হলিউডের লেখক-কলাকুশলী ধর্মঘটে উৎসবে কিছুটা ভাটা পড়েছে। তবুও উৎসব কর্তৃপক্ষ আশা করছে বিশ্বসেরা নির্মাতাদের সিনেমা ঘিরে সিনেমাপ্রেমীদের উৎসাহে ভাটা পড়বে না।

এবারের উৎসবে সব কটি বিভাগ মিলিয়ে ৭০ টিরও বেশি সিনেমা দেখানো হবে। এর মধ্যে থাকবে ২৫ টিরও বেশি ধ্রুপদি চলচ্চিত্র। এবারের উদ্বোধনী ও সমাপনী—দুটো সিনেমাই সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত।

উদ্বোধনী সিনেমা ‘কমান্ড্যান্ট’-এর নির্মাতা এদওয়ার্দো দি অ্যানজেলিস। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের এক নৌ-ক্যাপ্টেনকে ঘিরে কাহিনি। যিনি শত্রু শিবিরের জাহাজ ডুবিয়ে দিয়েছিলেন কিন্তু বাঁচিয়েছিলেন তার যাত্রীদের। অন্যদিকে জে. এ. বায়োনার সিনেমা ‘লা সোসিয়েদাদ দে লা নেইভ’ দেখানো হবে শেষ দিন। আন্দিজ পর্বতে একটি বিমান দুর্ঘটনার পরে যাত্রীদের টিকে থাকার গল্প নিয়ে কাহিনি।

উৎসবের সেরা পুরস্কার স্বর্ণসিংহ-এর লড়াইয়ে আছেন বাঘা বাঘা নির্মাতা। ব্র্যাডলি কুপারের ‘মায়েস্ত্রো’, সোফিয়া কপোলার ‘প্রিসিলা’, ডেভিড ফিঞ্চারের ‘দ্য কিলার’, মিশেল ফ্রাঙ্কোর ‘মেমোরি’, রিউসুকে হামাগুচির ‘ইভিল ডাজ নট এক্সিস্ট’, পাবলো লারাইনের ‘এল কন্ডো’ লড়াই করবে এই বিভাগে। আউট অব কমপিটিশনে আছে মার্কিন নির্মাতা উডি অ্যালেনের সিনেমা। রোমান পোলানস্কির ‘দ্য প্যালেস’ও আছে এই বিভাগে। পোলানস্কির সিনেমা থাকায় বিতর্ক পিছু ছাড়েনি উৎসবের। এবারও আছে দুটো সিরিজসহ বেশ কয়েকটি প্রামাণ্যচিত্র। হরাইজন এক্সট্রা ও হরাইজন বিভাগে থাকছে নানা স্বাদের সিনেমা। থাকবে বিশেষ প্রদর্শনীর ব্যবস্থা।

এবারের আসরে ড্যামিয়েন শ্যাজেল থাকছেন প্রধান বিচারক হিসেবে। তার সঙ্গী সালেহ বাকরি, জেন ক্যাম্পিয়ন, মিয়া হানসেন লাভ, গ্যাব্রিয়েল মেইনিত্তি, মার্টিন ম্যাকডোনা, স্যান্টিগো মিত্রে, লরা পয়েট্রাস প্রমুখ। প্রথম সিনেমার প্রতিযোগিতা বিভাগের প্রেসিডেন্ট হিসেবে থাকবেন অ্যালিস দিওপ।

এবার সম্মানসূচক ‘গোল্ডেন লায়ন ফর লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট’ দেওয়া হবে ইতালিয় নির্মাতা লিলিয়ানা কাভানি ও হংকংয়ের অভিনেতা টনি লিয়াং চিউ ওয়াইকে। ইতালিয় অভিনেত্রী গিনা লোলোব্রিজিডার সম্মানে তার দুটি সিনেমা দেখানো হবে। চলতি বছর জানুয়ারিতে মারা যান তিনি।

আজ শুরু হচ্ছে ৮০তম ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসব। ছবি: সংগৃহীত এই আসরেও ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসব পাশে দাঁড়াচ্ছে নির্যাতিত নির্মাতাদের। ইরানে যারা মুক্তবুদ্ধি চর্চার স্বাধীনতায় লড়াই করে যাচ্ছেন এবং যেসব নির্মাতারা ইরান সরকারের নির্যাতনের শিকার তাদের জন্য লাল গালিচায় ফ্ল্যাশ মব করা হবে ২ সেপ্টেম্বর। এই আয়োজন বিশেষ করে হচ্ছে নির্মাতা সাঈদ রুস্তায়ির জন্য। যাকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ইরান সরকার। অনুমতি ছাড়া কান চলচ্চিত্র উৎসবে তার সিনেমার প্রদর্শনী করায় এই দণ্ড দেওয়া হয়। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত নির্মাতা জাফর পানাহির জন্যও গত আসরে এমন ফ্ল্যাশ মব করে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন বিভিন্ন দেশের নির্মাতা ও চলচ্চিত্রপ্রেমীরা।

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের নিন্দা জানিয়ে এবং ইউক্রেনের জনগণকে সমর্থন জানিয়ে ৬ সেপ্টেম্বরকে নির্ধারণ করা হয়েছে ‘ইউক্রেনিয়ান ডে’ হিসেবে। এদিন থাকবে ইউক্রেনের চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট মানুষদের নিয়ে নানা আয়োজন। থাকবে যুদ্ধকালীন সময়ে ইউক্রেন চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি ও এর ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনা।

অভিনেত্রী কাতরিনা মুরিনো থাকছেন উদ্বোধনী ও সমাপনী দিনের সঞ্চালক হিসেবে। পুরো আয়োজনের পরিচালক হিসেবে আছেন আলবের্তো বারবারা। আজ থেকে শুরু হওয়া এই উৎসবের পর্দা নামবে আগামী ৯ সেপ্টেম্বর। চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা, প্রতিযোগিতা, লাল গালিচায় তারকাদের পদচারণাসহ চলচ্চিত্রপ্রেমী মানুষদের হই হুল্লোড়ে গোটা দশটি দিন কাটাবে ভেনিস।

Source link

Related posts

নুহাশ হুমায়ূনের ‘মশারি’ প্রযোজনা করবেন দুই অস্কারজয়ী

News Desk

চতুর্থ স্বামীকেও ডিভোর্স দিলেন জেনিফার লোপেজ

News Desk

প্রিয় তারকার মতো পর্নোস্টার হতে চেয়েছিলেন শাহরুখ

News Desk

Leave a Comment