free hit counter
বাংলাদেশ

১৩২টি পশু নিয়ে ঢাকার পথে ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন

১৩২টি কোরবানির পশু নিয়ে ঢাকার পথে রওনা দিয়েছে ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন। বুধবার (৬ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৪টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ট্রেনটি ছাড়া হয়। পরে রাজশাহী স্টেশন থেকে পশু নিয়ে সন্ধ্যায় ঢাকার পথে রওনা হয়।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ সূত্র জানায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী, আড়ানী ও বড়ালব্রিজ মোট চার স্টেশন থেকে ৩৬টি গরু ও ৯৬টি ছাগল অর্থাৎ ১৩২টি পশু নিয়ে ঢাকায় পৌঁছাবে। ট্রেনের প্রতি ওয়াগনে ২০টি গরু-ছাগল বহন করা যায়। এতে প্রতি ওয়াগনের খরচ পড়ছে ১১ হাজার ৮২০ টাকা।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) অসীম কুমার তালুকদার বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-ঢাকা রুটে পাঁচটি ওয়াগন নিয়ে দুটি ‘ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন’ চলছে। স্বল্প খরচে এবং নির্বিঘ্নে কোরবানির পশু পরিবহনে ট্রেনটি চালু করা হয়েছে। প্রথম দিনে চারটি ওয়াগন বুকিং হয়েছে। একটি ফাঁকা ছিল। তিন দিন চলবে ট্রেনটি। এক দিন আগেই দিতে হবে বুকিং।’

তিনি আরও বলেন, ‘ঈদে ঘরমুখো যাত্রী পরিবহনে এখন রেলওয়ে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে। সুতরাং ক্যাটল স্পেশাল ট্রেনের চাহিদা না থাকলে দুই দিন চলেই বন্ধ হতে পারে ট্রেনটি।’

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ২০২১ সালের ১৭ জুলাই ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন চালু হয়। ট্রেনটি ১৯ জুলাই পর্যন্ত গরু পরিবহন করেছিল।

ব্যবসায়ীরা জানান, ট্রেনে পশু পরিবহনে খরচ ট্রাকের চেয়ে অর্ধেক। তবে ঢাকায় ট্রেন স্টেশন থেকে হাট পর্যন্ত পৌঁছানোর সময় বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। তাই অনেকে ট্রেনে গরু বুকিং করতে চান না।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলওয়ের স্টেশন মাস্টার শহিদুল আলম বলেন, পশু পরিবহনে সাশ্রয়ী হওয়ায় ট্রেন বেছে নিয়েছেন খামারি ও ব্যবসায়ীরা। ঈদের আগ পর্যন্ত খামারিদের বুকিংয়ের ওপর নির্ভর করে ট্রেন চালানো হবে।

Source link