free hit counter
বাংলাদেশ

হাসপাতালে বিদ্যুৎ নেই, সিলেটে স্বাস্থ্যসেবা ব্যাহত

পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিতে সিলেটে আবারও ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে। প্লাবিত হচ্ছে বিভিন্ন এলাকা। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন কয়েক লাখ মানুষ। পুরো জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। এতে হাসপাতালে রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা ব্যাহত হয়ে পড়েছে।

শনিবার (১৮ জুন) দুপুরে সিলেটের শহীদ ডা. শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতাল ও এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। পানি ঢুকে পড়েছে শামসুদ্দিন হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারেও। এতে দুর্ঘটনা এড়াতে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। সেই সঙ্গে জেনারেটর কক্ষে পানি ঢুকে পড়ায় জেনারেটরও চালু করা সম্ভব হচ্ছে না।

আরও পড়ুন: বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন সিলেট

ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া জানান, হাসপাতালে বন্যার পানি প্রবেশ করায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। সেই সঙ্গে হাসপাতালের জেনারেটর কক্ষে পানি প্রবেশ করেছে। তাই জেনারেটরও চালু করা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, ‘আমরা বিকল্প পদ্ধতিতে হাসপাতালের আইসিসিইউ ও সিসিইউয়ে থাকা রোগীদের জন্য জেনারেটরের ব্যবস্থা করতে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি।’

আরও পড়ুন: সিলেটে খাবার সংকট

জানা গেছে, শনিবার সকালে শহীদ ডা. শামসুদ্দিন হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে এক রোগীকে অ্যানেস্থেসিয়া দেওয়ার পর ভবনের নিচ তলায় বন্যার পানি প্রবেশ করে। এরপর দুর্ঘটনা এড়াতে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করায় বিপাকে পড়েন চিকিৎসকরা। ওই হাসপাতালের জেনারেটর কক্ষে পানি ঢুকে পড়েছে। তাই জেনারেটরও চালু করা সম্ভব হয়নি। এছাড়া হাসপাতালের কেবিন ও আউটডোরে পানি প্রবেশ করেছে।

হাসপাতালের জেনারেটর কক্ষেও পানি প্রবেশ করেছে

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিউবো) বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলী আবদুল কাদির জানান, কুমারগাঁও গ্রিড উপকেন্দ্রে বন্যার পানি প্রবেশ করায় সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। পানি নামানো গেলে আবারও বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে।

Source link