free hit counter
বাংলাদেশ

স্ত্রী-সন্তানকে বাড়ি নিতে হাসপাতালে যাওয়া হলো না রাসেলের

তিন দিন আগে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার ইলিয়টগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে কন্যাসন্তানের জন্ম দেন সাংবাদিক রাসেল প্রধানের (২৫) স্ত্রী। আজ স্ত্রী-সন্তানকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি নেওয়ার কথা ছিল তার। এজন্য দুই বন্ধুকে নিয়ে মোটরসাইকেলে রওনা দেন। কিন্তু তারা আর হাসপাতালে পৌঁছাতে পারেননি। পথিমধ্যে বাসের ধাক্কায় তিন জনই নিহত হয়েছেন।

শনিবার (৯ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় দাউদকান্দি উপজেলার জিংলাতলী এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে। 

রাসেল প্রধান উপজেলার বেকিনগর গ্ৰামের প্রধান বাড়ির মো. আবদুল হকের ছেলে। তিনি স্থানীয় দৈনিক সমাজকণ্ঠের দাউদকান্দি উপজেলার প্রতিনিধি। নিহত অপর দুই জন তার বন্ধু একই এলাকার শাহজালাল মিয়ার ছেলে মো. শরীফ (২৮), মো. শাহ জালালের ছেলে মো. তাফসীর (২০)।

আরও পড়ুন: মোটরসাইকেলে ধাক্কা দিয়ে উল্টে গেলো বাস, নিহত ৩

রাসেল প্রধানের মামা মনির বলেন, ‌‘তিন দিন হলো আমার ভাগিনা প্রথম সন্তানের বাবা হয়েছে। ইলিয়টগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল থেকে আজ ডাক্তার রিলিজ দেবে, তাই বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলে আসছিল। কিন্তু পথিমধ্যে আমার আদরের ভাগিনা মারা গেলো।’

তিনি আরও বলেন, ‘রাসেলের মৃত্যুর খবর তার স্ত্রীকে দিতে চাইনি। তারপরও কীভাবে যেন শুনে ফেলেছে। এরপরই সে অজ্ঞান হয়ে গেছে। তাকে এখনও হাসপাতাল থেকে আনতে পারিনি।’

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক মো. সালাউদ্দিন জানান, সাড়ে ১০টায় লক্ষ্মীপুর থেকে ঢাকামুখী আল বারাকার একটি বাস জিংলাতলী এলাকায় আসলে সামনে একটি মোটরসাইকেল এসে পড়ে। এ সময় পাশ কেটে যাওয়ার চেষ্টা করেন বাসচালক। পরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেলে ধাক্কা দিয়ে সড়কের একপাশে উল্টে যায়। এ ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী তিন জন নিহত হয়েছেন।

Source link