Image default
বাংলাদেশ

সেলিম প্রধানের বাড়িতে হামলা ও গুলি নিক্ষেপ, অভিযোগ করবেন রাশিয়ান অ্যাম্বাসিতে

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত প্রার্থীর পক্ষে সমর্থন দেওয়ায় জাপান-বাংলাদেশ গ্রুপের চেয়ারম্যান সেলিম প্রধানের বাড়িতে দফায় দফায় হামলা ও গুলি ছোড়ার অভিযোগ উঠেছে। এতে কমপক্ষে ছয় নিরাপত্তাকর্মী আহত হয়েছেন। শুক্রবার (২৪ মে ) সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত দফায় দফায় রূপগঞ্জ উপজেলার সাওঘাট এলাকার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- নিরাপত্তাকর্মী আক্তার হোসেন, ফরহাদ হোসেন, শফিকুল ইসলাম, শিপন হাওলাদার, রানা শেখ ও ফারুক হোসেন।

হামলার প্রসঙ্গে সেলিম প্রধান দাবি করেন, সকালে বালু হাবিবের (সদ্য নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবিব) নির্দেশে শতাধিক লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেছে। বাড়ির লোকজনদের মারধর করে আহত করেছে। তাদেরকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে। তারা ঘোষণা দিয়ে আমাকে মেরে ফেলার জন্য এই হামলা করেছে। সদ্য অনুষ্ঠিত উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনে বালু হাবিবের (হাবিবুর রহমান হাবিব) প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রানুর পক্ষে সমর্থন দেওয়ায় এই হামলা করা হয়েছে। এমপির সাহেবের ছেলে পাপ্পা গাজীর (গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা) নির্দেশে বালু হাবিব ও তার লোকজন এই হামলার সাহস পেয়েছে।

রাশিয়ান অ্যাম্বাসিতে অভিযোগ করবেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমার স্ত্রী ও সন্তানরা রাশিয়ার নাগরিক। আমি এই ঘটনায় রাশিয়ান অ্যাম্বাসিতে অভিযোগ করবো। এই অবস্থায় আমার স্ত্রী ও সন্তানদের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। তাই আমি এই ঘটনায় থানায় অভিযোগ করবো।

জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সেলিম প্রধানের রাশিয়ান স্ত্রী আনা প্রধান বলেন, আমি ও আমার সন্তানরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এই ঘটনায় পুলিশ প্রশাসন ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে রাশিয়ান অ্যাম্বাসিতে অভিযোগ করবো।

সেলিম প্রধানের বাড়িতে হামলা ও গুলি নিক্ষেপ, অভিযোগ করবেন রাশিয়ান অ্যাম্বাসিতে

বিকালে হামলা প্রসঙ্গে সেলিম প্রধান দাবি করেন, আমাকে ও আমার পরিবারকে ওরা খুন করতে চায়। তাই এভাবে বার বার হামলা করছে। ৩০ রাউন্ডের অধিক গুলি ছুড়েছে। গুলির খোসা অনেক স্থানে পড়ে আছে। এই ঘটনায় অনেক ভিডিও আমার কাছে আছে, যা প্রমাণ হিসেবে রেখে দিয়েছি।

এ বিষয়ে মন্তব্য নেওয়ার জন্য রূপগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবিবের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

রূপগঞ্জ থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, একটি আড়তের ব্যবসাকে কেন্দ্র করে সকালে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এরপর থেকে যথেষ্ট সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তারা ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

সেলিম প্রধানের বাড়িতে হামলা ও গুলি নিক্ষেপ, অভিযোগ করবেন রাশিয়ান অ্যাম্বাসিতে

বিকালে হামলার ঘটনা ও গুলি ছোড়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সেখানে পুলিশ রয়েছে। তারা বিষয়টি দেখছে।

প্রসঙ্গত, গত ২১ মে অনুষ্ঠিত রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু হোসেন ভূঞা রানুকে সমর্থন দিয়ে প্রকাশ্যে তার পক্ষে প্রচারণা চালিয়েছিলেন সেলিম প্রধান। তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব বিজয়ী হয়েছেন।

Source link

Related posts

বিকাশ-রকেটে আনা যাবে রেমিট্যান্স

News Desk

ইউএনওর বিরুদ্ধে কৃষকের মামলা

News Desk

ডিজিটাল বিশ্বের নেতৃত্ব দেবে মেধাবী তরুণরা: পলক

News Desk

Leave a Comment