সুনামগঞ্জের তাহিরপুর বাজারে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে পাঁচ পুলিশ, নারীসহ ১৪ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার বিকালে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রাজন ও যুবলীগ নেতা হাফিজ উদ্দিনের লোকজনের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ তরফদার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

আহতরা হলেন– সুমি আক্তার (৪৫), অনীক মিয়া (২২), আনজুমিয়া (৪০), ওমর গনি (১৩), রুনা বেগম (৫০), মাসুম মিয়া (২২), রাসেল মিয়া (৩০), মনিরা বেগম (২৩), নেজারুল মিয়া (৩৫), তাহিরপুর থানা পুলিশের এসআই শাহাদাৎ হোসেন (৩০) ও শফিক (৩৫), কনস্টেবল জয়দেব দাস (২৯), তারেক (২৬) ও আদিল মাহমুদ (২৯)।

তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের মেডিক্যাল অফিসার সুমন চন্দ্র বর্মণ বলেন, ‘মারামারির ঘটনায় পাঁচ পুলিশ সদস্যসহ ১৪ জন চিকিৎসা নিয়েছেন। তাদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ তিন জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সুনামগঞ্জে পাঠানো হয়েছে। ইটপাটকেলের আঘাতে পুলিশ সদস্যরা সামান্য আহত হয়েছেন। আহতরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।’

পুলিশ সুপার (এসপি) মিজানুর রহমান ও তাহিরপুর থানার ওসি বলেন, ‘সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড শটগানের ফাঁকা গুলি ছোড়ে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।’

Source link

Related posts

বিএসআরএম শিল্পগ্রুপকে পানি উত্তোলন বন্ধ রাখার নির্দেশ

News Desk

মহাসড়কে বাস সংকটে ভোগান্তি, বাড়তি ভাড়া আদায়

News Desk

সিলেটে বাবা-মায়ের পাশে শেষ শয্যায় মুহিত

News Desk

Leave a Comment