Image default
বাংলাদেশ

বৃষ্টি হলেই বিদ্যালয় মাঠে হাঁটুপানি

বৃষ্টি হলেই ডুবে যায় মাঠ। হাঁটু পরিমাণ পানি জমে মাঠে। এ অবস্থায় লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের কাকিনা মহিমা রঞ্জন স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয় ও কাকিনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পড়েছে চরম ভোগান্তিতে।   

বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) সরেজমিন দেখা গেছে, বিদ্যালয়ের মাঠ নিচু হওয়ায় এবং পানি নিষ্কাশনের পথ না থাকায় মাঠটির বেশিরভাগ অংশই জলমগ্ন হয়ে আছে। অল্প কিছু অংশে পানি না থাকলেও তা কর্দমাক্ত ও স্যাঁতসেঁতে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা থাকলেও শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষ ছেড়ে মাঠে নামতে পারছে না। জলাবদ্ধতার কারণে শ্রেণিকক্ষে যাতায়াতের সময় শিক্ষার্থীরা অনেকেই পা পিছলে পড়ে যায়। এতে নোংরা হয় তাদের জামা-কাপড় ভিজে যায় বই খাতা।

এ ছাড়া মাঠে জমে থাকা কাদাপানির কারণে শিক্ষার্থীরা শরীরচর্চা ও জাতীয় সংগীত গাইতে পারে না। এতে স্কুলের শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে দ্রুততার সঙ্গে বিদ্যালয় মাঠের জলাবদ্ধতা নিরসনের জোর দাবি জানায় শিক্ষার্থীরা।

কাকিনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী মুশফিকুর রহমান লাম ও তৃতীয় শ্রেণির রুমি আক্তার বলে, তারা বাড়িতে বদ্ধ পরিবেশে থাকে, আবার বিদ্যালয়ে এসে শ্রেণিকক্ষেও একই অবস্থা। 

স্থানীয়রা জানায়, মাঠটি শুধু স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদেরই নয়, গ্রামের যুবকদেরও খেলাধুলার মাঠ। মাঠটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করা এবং পানি নিষ্কাশনের নালা বন্ধ করে পুকুরসহ বাড়িঘর নির্মাণ করায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু জলাবদ্ধতা নিরসনে বাস্তবভিত্তিক কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না।

কাকিনা মহিমা রঞ্জন স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসাদুজ্জামান আশা বলেন, ‘এই বিদ্যালয় ১০৩৭ শিক্ষার্থী রয়েছে। বৃষ্টির পানি বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে নিষ্কাশনের পথ না থাকায় এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি। এ বিষয়ে আমরা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ স্থানীয়দের নিয়ে লিখিতভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর আবেদন করেছিলাম। তিনি পরিদর্শনও করে গেছেন কিন্তু আজও সমস্যার সমাধান হয়নি।’

সামান্য বৃষ্টিতেই মাঠজুড়ে থই থই করে পানি কাকিনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অনিমেষ পাল বলেন, ‘এই স্কুলে ৩৪০ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। আমি যোগদান করার ছয় বছর হলো। যোগদানের পর থেকে দেখি বর্ষার সময় মাঠে পানি জমে থাকায় স্কুলের শিক্ষার্থীরা শারীরিক শিক্ষা ও মাঠে খেলাধুলা করতে পারছে না। বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে লিখিত ভাবে এবং অত্র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে।’

কাকিনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাহির তাহু বলেন, ‘জলাবদ্ধতার বিষয়টি আমার জানা নেই। দ্রুত জলাবদ্ধতা নিরসনের ব্যবস্থা করা হবে।’

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জহির ইমাম বলেন, ‘স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের সঙ্গে সমন্বয় করে মাঠ থেকে দ্রুত পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করা হবে।’

Source link

Related posts

খুলনায় মৃত্যু কমেছে, দুই হাসপাতালে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে

News Desk

সকল ইউনিয়ন পরিষদে বঙ্গবন্ধুর ম্যূরাল স্থাপনের নির্দেশ

News Desk

২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনায় ৩ জনের মৃত্যু

News Desk

Leave a Comment