free hit counter
বাংলাদেশ

বিয়ে করতে বরের বাড়িতে কনে

বরযাত্রী নিয়ে কনের বাড়িতে বিয়ে করতে যাওয়ার নিয়ম হলেও এবার প্রথা ভেঙে আত্মীয়দের নিয়ে বরের বাড়িতে গিয়ে বিয়ে করেছেন কনে। ব্যতিক্রমী এ ঘটনা ঘটেছে ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার মনোহরপুর গ্রামে। বুধবার (১৩ জুলাই) কনে তার স্বজনদের নিয়ে স্বয়ং বরের বাড়িতে উপস্থিত হন। 

জানা যায়, শৈলকুপা উপজেলা শহরের অফিসপাড়ার আব্দুল কাদেরের মেয়ে ইতি সেলিনা ও বর একই উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের শামসুদ্দিন লস্করের ছেলে ঢাকার বেসরকারি টেলিভিশনের সংবাদকর্মী এম এ মালিক।

দুপুরে মনোহরপুর গ্রামের বরের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, সুসজ্জিত মাইক্রোবাস ও মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে কনে আসেন বরের বাড়ি। প্রথা অনুযায়ী ফুল আর মিষ্টি মুখ করিয়ে কনেকে বরণ করে নেন বরপক্ষের মুরব্বিরা। এরপর কনেকে গাড়ি থেকে নামিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। বসানো হয় নির্ধারিত স্থানেও। অপরদিকে বরকেও বসানো হয় তার পাশে। সেখানেই ধর্মীয় বিধান মতো বিয়ে হয় তাদের। বিয়ের পর বরের বাড়িতেই রয়ে যায় কনে।  

বিয়ে শেষে কনে ইতি সেলিনা বলেন, পুরুষ শাসিত সমাজের রীতি ভেঙে কন্যাযাত্রী নিয়ে বরের বাড়িতে এসে বিয়ে করেছি। পুরুষশাসিত সমাজে নারীদের প্রতিনিয়ত নির্যাতনের শিকার হতে হয়। আমি আমার এই বিয়ে দিয়ে ওসব নির্যাতনের প্রতিবাদ জানিয়েছি।

 বর এম এ মালিক বলেন, আমি নারি পুরুষে সম অধিকারে বিশ্বাসী। আমাদের পরিবারের দু’পক্ষের সম্মতিতে কনে আমার বাড়িতে এসেছে। বিয়ে করেছি আমরা। আমি মনে করি এতে কিছু হলেও নারী অধিকার প্রতিষ্ঠা হয়েছে।

পাঁচ লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ে হয় ইতি সেলিনা, এম এ মালিকের। এই বিয়েতে কনে যাত্রী ছিল ৩০ জন।

 

Source link