দিনাজপুরের পার্বতীপুরে মুর্তি ভাংচুরের দায়ে দু’জন কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশ। গত সোমবার (২৪ মে) বিকেল ৩ টার দিকে উপজেলার মোমিনপুর ইউনিয়নের চন্দ্রপুর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

আটককৃতরা হলেন, ইন্দ্রপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র খাদেমুল ইসলাম (১৩) ও ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্র কালাম মিয়া। পার্বতীপুর মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সোহেল রানা বলেন, নদীর ধারে বড় শ্বশান এলাকায় একটি অরক্ষিত ঘরে একটি শিবমূর্তি ছিল।

কালাম মিয়া ইট দিয়ে ঢিল মেরে মূর্তির মাথা ভেঙ্গে ফেলেন। আর হাত ভাংছিলেন হাফিজুল ইসলাম। খাদেমুল ইসলাম তাদের কাজে সহোযোগীতা করেন। মূর্তি ভাঙ্গার অপরাধে স্থানীয় গ্রাম পুলিশ তাদের আটক করে পুলিশে দেন। আটককৃত দুই ছাত্র হঠাৎ করে আমরা কাজটি করে ফেলেছি। বুঝতে পারিনি আমাদের এই পরিনতি হবে। পার্বতীপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ইমাম জাফর বলেন, এঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। তারা তা স্বীকার করেছে। তারা মূলত কৌতহল বশতঃ মূর্তিটি ভাংচুর করেছে।

Related posts

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৪ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ চলছে

News Desk

অ্যাস্ট্রাজেনেকার আড়াই লাখ ডোজ টিকা আসছে শনিবার, পাবেন যারা

News Desk

কলকারখানার বিষাক্ত বর্জ্য মিশছে হালদায়, মারা যাচ্ছে মাছ-ডলফিন

News Desk

Leave a Comment