free hit counter
বাংলাদেশ

দুই ছেলেসহ মায়ের লাশ পড়ে ছিল ঘরের মধ্যে

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থেকে দুই ছেলেসহ মায়ের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তারা হলেন- উপজেলার ধুকুরিয়া বেড়া ইউনিয়নের সুলতান মিয়ার স্ত্রী রওশনারা (৪০), ছেলে জেহাদ (১০) ও মাহিম (৩)। শনিবার সন্ধ্যার দিকে তাদের লাশ নিজ ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়।

সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান মণ্ডল জানান, প্রাথমিকভাবে এটাকে হত্যাকাণ্ড বলেই মনে হচ্ছে। তবে ঘটনার সম্ভাব্য সব কারণ খুঁজে বের করতে আন্তরিকতার সাথে তদন্ত করা হচ্ছে। আশা করছি খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যেই আসল রহস্য বের হয়ে আসবে।

জানা যায়, সুলতান মিয়ার দ্বিতীয় স্ত্রীর দায়েরকৃত মামলায় দীর্ঘ দিন কারাভোগের পর সম্প্রতি তিনি জামিনে মুক্তি পেয়ে বাড়িতে আসেন। এরপর থেকে দ্বিতীয় স্ত্রীর কাছেই থাকতেন। এদিকে প্রথম স্ত্রী রওশনারা অন্যের বাড়িতে সুতাকাটা শ্রমিকের কাজ করতেন। সঙ্গে ২ ছেলেকে নিয়ে সংসার করতেন।

কয়েক দিন ধরে রওশনারা মহাজন বাড়িতে কাজে যাচ্ছেন না। এজন্য মহাজন তাকে যোগাযোগ করেও না পেয়ে রওশনারার বড়বোন লিলি খাতুনকে ফোন দিলে তিনি শনিবার দুপুরে ধুকুরিয়া বেড়া ইউপির মবুপুর গ্রামের বাড়িতে এসে ঘরের সিটকিনি বন্ধ পায়। তিনি ঘরের সিটকিনি খুললে তাদের মরদেহ দেখে চিৎকার দিলে স্থানীয়রা এসে জড়ো হন। পরে পুলিশকে খবর দেন তারা। মরদেহ থেকে দুর্গন্ধ বের হচ্ছে।

এদিকে খবর পেয়ে সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান মণ্ডল ঘটনাস্থলে আসেন। ঘটনাস্থলে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বেশ কয়েকটি ইউনিটের সদস্যরা কাজ করছেন।

বেলকুচি থানার ওসি তাজমিলুর রহমান জানান, একটি ফাঁকা বাড়িতে শুধু মা আর তার দুই ছেলেই থাকত বলে জেনেছি। আজ বাড়ি থেকে পচা দুর্গন্ধ বের হতে থাকলে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেন। আমরা এসে দেখি ঘরের মধ্যে মরদেহগুলো পড়ে আছে। ঘটনাস্থলে পুলিশের সিআইডি ও পিবিআইয়ের টিমও কাজ করছেন।

Bednet steunen 2023