free hit counter
বাংলাদেশ

ডোবায় মিললো যুবকের লাশ, পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

নারায়ণগঞ্জের বন্দরের বাগবাড়ী এলাকায় পুলিশের ধাওয়ায় ডোবায় পড়ে নিলয় আহমেদ বাবু (৩০) নামে এক যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। নিখোঁজের চার দিন পর বুধবার (৪ মে) দুপুরে স্থানীয় একটি ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা জানান, এই ঘটনায় অভিযুক্ত বন্দর পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) রওশন ফেরদৌসকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

নিলয় আহমেদ বাবু বাগবাড়ী এলাকার শোভা মিয়ার ছেলে। তিনি গেঞ্জি তৈরির কারখানার মালিক।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে খোঁজ করে ওই ডোবায় বাবুর লাশ দেখতে পান স্বজনরা। পরে খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ আসলে স্থানীয়দের রোষানলে পড়ে। এ সময় অভিযুক্ত পুলিশ কমকর্তার ফাঁসি চেয়ে স্লোগান দেন বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

মৃতের খালাতো ভাই ইমন আহমেদ বলেন, ‘কিছুদিন আগে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হাসিনা বেগম নামে এলাকার এক নারী আমার ভাইয়ের নামে থানায় একটি মিথ্যা লিখিত অভিযোগ করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ঈদের দুই দিন আগে রবিবার রাতে এসআই ফেরদৌস আমার ভাই বাবুকে ধাওয়া দেন। ধাওয়া খেয়ে আমার ভাই এলাকার ওই ডোবায় পড়ে যায়। সে সময় ফেরদৌস তাকে উদ্দেশ্য করে ঢিল ছুড়ে মারেন। এরপর থেকে বাবু নিখোঁজ রয়েছে। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এই ঘটনায় বন্দর থানায় একটি জিডি করা হয়। পরে আজ সকালে খোঁজাখুঁজি করে ডোবা থেকে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার ভাইয়ের হত্যাকারী ওই পুলিশ ও হাসিনা বেগমের ফাঁসি চাই।’

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছি। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বন্দর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই রওশন ফেরদৌসকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

 

Source link