free hit counter
বাংলাদেশ

অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটার নিয়ম

জানুন অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটার নিয়ম ২০২১। বিকাশের মাধ্যমে ট্রেনের অগ্রীম টিকিট অনলাইনে কাটার নিয়ম জানতে চান? বাংলাদেশে ট্রেনকে সবচেয়ে নিরাপদ ও সাশ্রয়ী পরিবহন ধরা হয়। অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সময় ২০২১ হলো রাত দিন ২৪ ঘণ্টা।

দূরপাল্লার যেকোনো ভ্রমণে তাই সবাই ট্রেন ব্যবহারেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে। কিন্তু ট্রেনের টিকিট কাটা এখানে অত্যন্ত দুঃসাধ্য কাজগুলোর মধ্যে একটি। বিশাল লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কাটার ঝামেলা থেকে বাঁচতে আপনি ব্যবহার করতে পারেন ই-টিকেটিং সিস্টেম। বাংলাদেশ রেলওয়ে থেকে আপনি অনলাইনেই টিকিট কেটে ফেলতে পারেন। তবে এজন্য আপনার কিছু জিনিসের প্রয়োজন হবে। মোবাইলে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম ২০২১।

আসুন দেখে নিই কিভাবে ট্রেনের টিকেট কাটবেন।

আপনি ২ ভাবে ট্রেনের টিকেট ক্রয় করতে পারেন, ১) বাংলাদেশ রেলওয়ের মোবাইল এ্যাপ থেকে, ২) বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইট থেকে।

Rail Sheba এ্যাপের মাধ্যমে | মোবাইলে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম

Google Play বা App Store থেকে Rail Sheba রেল সেবা এ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন।

Google Play Store বা App Store থেকে সার্চ করুন Rail Sheba লিখে। তারপর এ্যাপটি আপনারে মোবাইলে ইনস্টল করে ওপেন করুন এবং নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন।

ধাপ ১ঃ সাইন আপ বা রেজিস্ট্রেশন

নিচের দিক থেকে Sign Up বাটনে ক্লিক করুন। নিচের মত একটি রেজিষ্ট্রেশন ফরম আসবে।
জাতীয় পরিচয়পত্র অনুসারে আপনার নাম ইংরেজিতে লিখুন। মোবাইল নম্বর, ইমেইল এড্রেস ও আপনার পছন্দমত ৮ ডিজিটের পাসওয়ার্ড দিয়ে Sign Up বাটনে ট্যাপ করুন।

আপনার দেয়া মোবাইল নম্বরে একটি OTP Code পাঠানো হবে। ওটিপি কোড দিয়ে মোবাইল নম্বর ভেরিফাই করে সাইন আপ কমপ্লিট করুন।

ধাপ ২ঃ প্রোফাইল আপডেট

এবার আপনার ব্যক্তিগত তথ্য দিয়ে প্রোফাইলটি আপডেট করতে হবে। নিচের ছবিতে দেখানো ধাপগুলো অনুসরণ করুন।
উপরের বাম পাশ থেকে 3 Lines মেন্যু আইকনে ক্লিক করুন। এর পর Settings অপশনে যান এবং Update Profile বাটনে ক্লিক করুন।

জাতীয় পরিচয়পত্র অনুসারে আপনার ইংরেজি নাম লিখুন। জন্মতারিখ ও জেন্ডার সিলেক্ট করুন। আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বরটি সঠিকভাবে লিখুন।
তারপর Submit বাটনে ক্লিক করলে আপনার প্রোফাইলটি আপডেট হয়ে যাবে।

ধাপ ৩ঃ ট্রেন সার্চ

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার জন্য, Purchase অপশন থেকে স্টেশন অনুসারে ট্রেন সার্চ করতে হবে।

From Station- যে স্টেশন থেকে রওনা হবেন। To Station- যে স্টেশনে নামবেন। Journey Date- যেদিন ভ্রমণ করবেন সিলেক্ট করুন।
Seat বা আসনের মান অনুসারে আপনি একটি Class সিলেক্ট করুন। সাধারণ সিটের মধ্যে রয়েছে Shovon এবং S-Chair। বয়স্ক যাত্রী কতজন এক শিশু যাত্রী কতজন সিলেক্ট করুন। তারপর Select Seat বাটনে ক্লিক করুন।
Seat বা আসন বাছাই করুন এবং Continue বাটন ক্লিক করে পরের ধাপে যান

ধাপ ৪ঃ টিকেটের মূল্য পরিশোধ

এখানে টিকেটের Class ভাড়ার পরিমাণ ভ্যাট, ব্যাংক চার্জ ও মোট খরচের পরিমাণ দেখানো হবে। সব ঠিক থাকলে, Pay Now বাটনে ক্লিক করে আপনার সুবিধামত পেমেন্ট অপশন, Debit/ Credit Card, bKash, Rocket বা অন্য মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে আপনার পেমেন্ট কমপ্লিট করুন।

কিছুক্ষণের মধ্যে আপনার মেইলে, অনলাইন টিকেটটি পাঠানো হবে। তাছাড়া আপনি Rail Sheba মোবাইল অ্যাপ থেকেও টিকেটটি ডাউনলোড করতে পারবেন।

ডাউনলোড করা টিকেটটি A4 সাইজের কাগজে প্রিন্ট করে নিবেন। এবং ভ্রমণের জন্য এটি আপনার সাথে রাখবেন।

বিকাশে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম
সরাসরি বিকাশ এ্যাপ থেকেও আপনি ট্রেনের টিকেট কাটতে পারেন। তবে এটি সরাসরি ওয়েবসাইট থেকে কাটার মত বা Rail Sheba অ্যাপ থেকে টিকেট কাটার মত। ওয়েবসাইট থেকে ট্রেনের টিকেট কাটার পদ্ধতিটি নিচে দেখুন।

 

ওয়েবসাইটে মাধ্যমে : অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটার নিয়ম

আপনার মোবাইল ফোন বা কম্পিউটার থেকে গুগল ক্রোম (Chrome) ব্রাউজার থেকে ভিজিট করুন এই ওয়েবসাইটে। Bangladesh Railway E-Ticketing Service (www.esheba.cnsbd.com)

https://esheba.cnsbd.com/ এই সাইটটি থেকে আপনি কোন ঝামেলা ছাড়াই টিকিট কেটে ফেলতে পারবেন। চলুন দেখে নেওয়া যাক মাত্র ৩টি ধাপে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার পদ্ধতি। অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সময় ২০২১ হলো রাত দিন ২৪ ঘণ্টা।

ধাপ ১: অ্যাকাউন্ট খোলা

যেসব জিনিস প্রয়োজন হবে: | মোবাইলে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম
* জাভাস্ক্রিপ্ট সাপোর্টেড কোন ব্রাউজার (মজিলা, গুগলক্রোম, অপেরা, যেকোনো ব্রাউজার হলেই হবে)
* আপনার ফোন নম্বর

কার্যপ্রণালী: |
১. https://esheba.cnsbd.com/ সাইটে গিয়ে Register এ ক্লিক করুন। মোবাইলে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম।
২. এরপরে যে ফর্মটা আসবে সেটি ভালো ও নির্ভুলভাবে পূরণ করে Sign Up বাটনে ক্লিক করুন।
৩. সব ঠিকঠাক থাকলে আপনাকে ভেরিফিকেশন কোড দিতে বলবে। ভেরিফিকেশন কোডটা আপনি যে নাম্বার দিয়েছিলেন সেই নাম্বারে সেন্ড করা হবে ০১*** ****** এই নাম্বার থেকে। ৬ ডিজিটের ভেরিফিকেশন কোডটি প্রবেশ করিয়ে Verify বাটনে ক্লিক করুন।

এভাবে আপনার অ্যাকাউন্ট ক্রিয়েট হয়ে যাবে। এরপর আপনাকে অ্যাকাউন্ট আপডেট করতে হবে। অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সময় হলো রাত দিন ২৪ ঘণ্টা।

ধাপ ২: অ্যাকাউন্ট আপডেট

যেসব জিনিস প্রয়োজন হবে:
* একটি অ্যাকাউন্ট (যেটি আপনি আগের ধাপে ক্রিয়েট করলেন)
* আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র অথবা জন্ম-নিবন্ধন নম্বর

কার্যপ্রণালী:

১. ব্রাউজারে ই-টিকেটিং সাইটে গিয়ে আপনার অ্যাকাউন্টে লগইন করুন। সাধারণত লগইন করাই থাকবে।

২. লগইন করার পরই আপনাকে একটি ফর্ম দেওয়া হবে। ফর্মটা ঠিকঠাক ভাবে পূরণ করতে হবে। উল্লেখ্য আপনার সার্টিফিকেটের জন্মতারিখ ব্যবহার করতে হবে। আর আপনি যেখানে থাকেন সে এলাকার পোস্ট কোড দিতে হবে। এই সাইটে গিয়ে আপনার এলাকার পোস্ট কোড খুঁজে বের কতে পারবেন। সব পূরণ করার পরে নিচের Update Your Profile বাটনে ক্লিক করুন।

৩. সব ঠিক থাকলে উপরে একটা নীল ড্যাসবোর্ডে আপনার সব তথ্য দেখাবে।
এভাবে আপনার অ্যাকাউন্ট আপডেট হয়ে গেলেই আপনি টিকিট কিনতে পারবেন।

ধাপ ৩: টিকিট কেনা

যেসব জিনিস প্রয়োজন হবে:
* যেকোন একটি পেমেন্ট মেথড (বিকাশ, রকেট, নেক্সাস পে, অ্যামেক্স অথবা ব্র্যাক বা সিটি ব্যাংক এর যেকোনো মাস্টার-কার্ড বা ভিসা কার্ড)
* আপডেট করা একটি অ্যাকাউন্ট

কার্যপদ্ধতি:

১. প্রথমে আপনার ব্রাউজারে ই-টিকেটিং সাইটে গিয়ে লগইন করে নিন।

২. এরপর হোম এ গিয়ে আপনার রুট ঠিক করে “Find” এ ক্লিক করুন।

৩. এরপরে ট্রেনের লিস্ট থেকে আপনি যে ট্রেনে যেতে চান সেটির পাশের “Details” বাটনে ক্লিক করুন।
৪. ডিটেইলস দেখে নিশ্চিত হয়ে “Purchase” বাটনে ক্লিক করুন।
৫. এরপর একটি স্ক্রিনে আপনার টিকিট এর ব্যাপারে সব ডিটেইলস চলে আসবে। সব ঠিকঠাক থাকলে “Buy Ticket” বাটনে ক্লিক করে “Agree” বাটনে ক্লিক করুন।
৬. এর পরের স্ক্রিন থেকে আপনার পেমেন্ট মেথড সিলেক্ট করে পে করলেই একটি ফিরতি ইমেইলে আপনার টিকিট চলে আসবে।

সবশেষে আপনার ইমেইলে পাঠানো অ্যাটাচমেন্ট টি প্রিন্ট-আউট করে নিশ্চিন্তে ট্রেনে উঠে যান। টিটিই কে ওই প্রিন্ট আউট দেখালেই হয়ে যাবে।

কোন সমস্যা হলে…: ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটার নিয়ম |

আপনার ভিপিএন বন্ধ করুন। এ সাইটটি শুধুমাত্র বাংলাদেশের জন্য।

ধাপ ২ এ কোন সমস্যা হলে ব্রাউজার চেঞ্জ করুন। অনেক সময়ে মজিলা ব্রাউজারে অ্যাকাউন্ট আপডেট হয় না। মোবাইলে ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম।

ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কতদিন আগে পাওয়া যায় |

সাধারণত পাঁচ দিন আগে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট পাওয়া যায়। বিভিন্ন পরিস্থিতির ওপর বিবেচনা করে অনলাইনে এবং অফলাইনে 5 থেকে 10 দিন আগে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট পাওয়া যায়। ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কতদিন আগে পাওয়া যায় ২০২১, আশা করছি এই প্রশ্নের উত্তর আপনি পেয়েছেন।

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার সময়|

সাধারণত সারা দিন রাত ধরে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সময় দেওয়া থাকে। বিভিন্ন সময়ে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার সময় পরিবর্তন করা হয়। অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার সময় বিশ্লেষণ করে দেখা গিয়েছে সাধারণত সকাল আটটা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত অগ্রিম ট্রেনের টিকিট অনলাইনে কাটা যায়।

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সময় ২০২১ হলো রাত দিন ২৪ ঘণ্টা। সাইটের নিয়ম অনুযায়ী এ টিকিট হস্তান্তরযোগ্য নয়। তবে এটা নিয়ে দুশ্চিন্তা করার কিছু নেই। একজনের টিকিট অন্যজন নিয়ে গেলেও টিটিই ধরবে না। টিটিই শুধু দেখবে যে আপনি বা অন্য কেউ বৈধ টিকিট নিয়ে ভ্রমণ করছে কি না। আর হ্যাঁ ভুলেও টিকিট ছাড়া ট্রেনে ভ্রমণ করবেন না।