Image default
বাংলাদেশ

টাঙ্গাইলের আট আসনে চলছে শান্তিপূর্ণ ভোট

টাঙ্গাইলের আটটি আসনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। রবিবার (৭ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে ব্যালটের মাধ্যমে এ ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট  চলবে।

টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখিপুর) আসনের বাসাইল উপজেলার কলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মো. মজনু মিয়া বলেন, সকাল ৮টায় শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। বর্তমানে ভোটার উপস্থিতি কম।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মতিয়ুর রহমান জানান, শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।

জেলার আটটি আসনে সরকারদলীয় ছাড়াও বিভিন্ন দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৫৬ জন। এর মধ্যে ছয়টিতে চাপে রয়েছেন আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থীরা। বাকি দুইটিতে নৌকার প্রার্থীরা নির্ভার রয়েছেন। এবার ছয়টি আসনে জয় পেতে নৌকার প্রার্থীদের হিমশিম খেতে হবে বলে মনে করছেন ভোটাররা।

টাঙ্গাইল-১ (মধুপুর-ধনবাড়ী) আসনে চার জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক এমপি খন্দকার আনোয়ারুল হক (ট্রাক), কৃষকশ্রমিক জনতা লীগের প্রার্থী ফারুক আহমেদ (গামছা), জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ আলী (লাঙ্গল)।

টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভূঞাপুর) আসনে ছয় জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে রয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান এমপি তানভীর হাসান ছোটমনির (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ ইসলাম তালুকদার ঠান্ডু (ঈগল), জাতীয় পার্টির হুমায়ূন কবির তালুকদার (লাঙ্গল), গণফ্রন্টের গোলাম সারোয়ার (মাছ), বাংলাদেশ কংগ্রেসের মোহাম্মদ রেজাউল করিম (ডাব) ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির সাইফুল ইসলাম (আম)।

টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনে ছয় জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আছেন ডা. কামরুল হাসান খান (নৌকা), সাবেক দুবারের এমপি স্বতন্ত্র প্রার্থী আমানুর রহমান খান রানার (ঈগল), জাতীয় পার্টির আব্দুল হালিম (লাঙ্গল), বাংলাদেশ  জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের মো. জাকির হোসেন (নোঙ্গর), বাংলাদেশ সাম্যবাদী দলের সাখাওয়াত খান সৈকত (চাকা) ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির হাসান আল মামুন সোহাগ (আম)।

টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) আসনে আট জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজহারুল ইসলাম তালুকদার ঠান্ডু (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক মন্ত্রী এবং চারবারের এমপি আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী (ট্রাক) ও স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক পাঁচবারের এমপি প্রয়াত শাজাহান সিরাজের মেয়ে ঈগল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী ব্যারিস্টার সারওয়াত সিরাজ শুক্লা, জাতীয় পার্টির ইঞ্জিনিয়ার লিয়াকত আলী (লাঙ্গল), জাকের পার্টির মোন্তাজ আলী (গোলাপ ফুল), তৃণমূল বিএনপির শহীদুল ইসলাম (সোনালী আঁশ), বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির শুকুর মামুদ (একতারা) ও জাতীয় পার্টির (জেপি) সাদেক সিদ্দিকী (বাইসাইকেল)।

টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসনে ৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী  মামুন-অর-রশিদ মামুনের (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান এমপি ছানোয়ার হোসেনের (ঈগল), স্বতন্ত্র প্রার্থী মুরাদ সিদ্দিকীর (মাথাল), স্বতন্ত্র প্রার্থী খন্দকার আহসান হাবিব (কেটলি), বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের মো. তৌহিদুল রহমান চাকলাদার (নোঙ্গর), জাতীয় পার্টির মো. মোজাম্মেল হক (লাঙ্গল), তৃণমূল বিএনপির শরিফুজ্জামান খান (সোনালী আঁশ) ও বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির হাসরত খান ভাসানী (একতারা)।  

টাঙ্গাইল-৬ (নাগরপুর-দেলদুয়ার) আসনে আট জন লড়ছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান এমপি আহসানুল ইসলাম টিটু (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী তারেক শামস খান হিমু (ঈগল) ও জাতীয় পার্টির মো. আবুল কাশেমের (লাঙ্গল), স্বতন্ত্র প্রার্থী ব্যারিস্টার মুহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম (ট্রাক), বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের খন্দকার ওয়াহিদ মুরাদ (নোঙ্গর), বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির আব্দুল করিম (একতারা), বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের মো. আনোয়ার হোসেন (ফুলের মালা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ মাহমুদুল ইলাহ (বাঁশি)।

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনে আট জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগ প্রার্থী বর্তমান এমপি খান আহমেদ (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী আটবারের চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু (ট্রাক), কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের আরমান হোসেন তালুকদার (গামছা), বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির গোলাম নওজব চৌধুরী (হাতুড়ি), জাতীয় পার্টির মো. জহিরুল ইসলাম জহির (লাঙ্গল), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) মঞ্জুর রহমান মজনু (মশাল), জাকের পার্টির মোক্তার হোসেন (গোলাপ ফুল), বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির রূপা রায় চৌধুরী (ডাব)। ইতোমধ্যে জাতীয় পার্টির জহিরুল ইসলাম জহির (লাঙ্গল) স্বতন্ত্র প্রার্থী মীর এনায়েত হোসেন মন্টুকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে গেছেন।

টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখিপুর) আসনে ছয় জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আওয়ামী লীগ প্রার্থী সাবেক এমপি অনুপম শাহজাহান জয়ের (নৌকা) সঙ্গে লড়ছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সাবেক এমপি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী (গামছা), জাতীয় পার্টির রেজাউল করিম (লাঙ্গল), তৃণমূল বিএনপির পারুল (সোনালী আঁশ), বিকল্পধারার আবুল হাশেম (কুলা) ও বাংলাদেশ কংগ্রেসের মোস্তফা কামাল (ডাব)।

প্রসঙ্গত, আটটি আসনে মোট ভোটার ৩১ লাখ ৪৬ হাজার ৬৭২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৫ লাখ ৭৭ হাজার ৩০৩ ও নারী ভোটার ১৫ লাখ ৬৯ হাজার ৩৪৯ জন। এর মধ্যে ২০ জন হিজড়া ভোটার রয়েছেন।

Source link

Related posts

দেশে করোনায় চার কোটিরও বেশি শিক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্ত

News Desk

শক্তিশালী হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’, বাড়ানো হলো সতর্কতা সংকেত

News Desk

খুলনায় গুদামে মিললো ১,৬৭,৪৮৪ লিটার ভোজ্যতেল 

News Desk

Leave a Comment