free hit counter
বাংলাদেশ

জেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে সন্তুষ্ট ইসি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, জেলা পরিষদ নির্বাচন অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খলভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোথাও অনিয়ম, সহিংসতা, গোলযোগ বা গন্ডগোলের তথ্য পাওয়া যায়নি। নির্বাচন নিয়ে কমিশন সন্তুষ্ট।

আজ সোমবার দুপুরে ৫৭ জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শেষে সিইসি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। এ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ করা হয় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। সব ভোটকেন্দ্রে ছিল সিসি ক্যামেরা। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে কেন্দ্রীয়ভাবে সিসিটিভিতে ভোটের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে নির্বাচন কমিশন। সকাল নয়টা থেকে বেলা দুইটা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হয়। পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সিইসি।

সিইসি বলেন, সিসিটিভির মাধ্যমে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করে নির্বাচন পরিচালনায় একটি নতুন অভিজ্ঞতা হয়েছে। এটি ভবিষ্যতে সুষ্ঠু ও সুন্দর নির্বাচন অনুষ্ঠানের সুযোগ করে দেবে।

কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘প্রথম থেকে বলে আসছি, আমরা স্বচ্ছ নির্বাচন চাই। আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে, ভোটাররা ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারছেন কি না? আপনারা দেখেছেন, আজকে ভোটকক্ষে কোনো দ্বিতীয় ব্যক্তি যাননি। অত্যন্ত সুশৃঙ্খলভাবে ভোটাররা ভোট দিয়েছেন। আমরা পর্যবেক্ষণ আরও সমৃদ্ধ করেছি। ক্যামেরার সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, গাইবান্ধা–৫ আসনের উপনির্বাচনে সিসিটিভির মাধ্যমে ইসি পর্যবেক্ষণ করে। সেখানে বেশ কিছু গুরুতর অনিয়ম দেখা যায়। কমিশন পুরো নির্বাচন বন্ধ করে দিয়েছিল। সেখান থেকে হয়তো একটি বার্তা এসেছে। এর একটি ইতিবাচক প্রভাব জেলা পরিষদ নির্বাচনে পড়েছে বলে তিনি মনে করেন।

Bednet steunen 2023