Image default
বাংলাদেশ

জরুরি ড্রাইভিং লাইসেন্স দেবে বিআরটিএ কাল থেকে

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে বন্ধ ছিল বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কার্যক্রম। আগামীকাল রোববার (৯ মে) থেকে দেশের সব মেট্রো ও জেলা সার্কেল অফিসে পুনরায় কার্যক্রম চালু করবে সংস্থাটি।

কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সীমিত পরিসরে প্রয়োজনীয় জনবল দিয়ে বিদেশে চাকরি, পড়াশোনা, শান্তিরক্ষী মিশন ইত্যাদিসহ জরুরি প্রয়োজনে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রিন্ট ও সরবরাহ এবং জরুরি প্রয়োজনে মোটরযান রেজিস্ট্রেশন প্রদান করা হবে।

শনিবার (৮ মে) বিআরটিএর পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ার) শীতাংশু শেখর বিশ্বাস স্বাক্ষরিত আদেশে এ তথ্য জানানো হয়।

বিআরটিএ সূত্রে জানা গেছে, কমপক্ষে ৯ লাখ আবেদনকারী ড্রাইভিং লাইসেন্স পাচ্ছেন না। গত ৩ মে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ভার্চুয়াল সভায় স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষকে (বিআরটিএ) দ্রুত ড্রাইভিং লাইসেন্স সরবরাহের নির্দেশ দেন।

ওই দিন ময়মনসিংহ সড়ক জোন, বিআরটিএ ও বিআরটিসি কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সেতুমন্ত্রী বলেছিলেন, কার্ড সংগ্রহ করে ড্রাইভিং লাইসেন্স সরবরাহ করা জরুরি। বিআরটিএ-কে ধাপে ধাপে হলেও কার্ড সরবরাহ করতে হবে। বিষয়টি এখন সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিতে হবে। ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য লেখালেখিও হচ্ছে। বিভিন্ন জায়গা থেকে আমরা অভিযোগ পাচ্ছি। যে প্রতিষ্ঠান কার্ড সরবরাহ করছে, তারা যেন দ্রুত তা করে। প্রয়োজনে এ ব্যাপারে ভারতীয় দূতাবাসের সঙ্গে কথা বলতে হবে।

উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকার ঘোষিত সর্বাত্মক বিধিনিষেধ জারির কারণে ১৪ এপ্রিল থেকে বন্ধ ছিল বিআরটিএর সব কার্যক্রম। দীর্ঘ ২৫ দিন পর আগামীকাল থেকে পুনরায় চালু হচ্ছে সংস্থাটির কার্যক্রম।

Related posts

রাজশাহী মেডিকেলে ২৪ ঘণ্টায় আরও ১০ জনের মৃত্যু

News Desk

বাড়িওয়ালার মেয়েকে প্রেম করে বিয়ের পর খুন

News Desk

পানিতে ডুবে বিচ্ছিন্ন বান্দরবান সদর উপজেলা

News Desk

Leave a Comment