চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় জিল্লুর ভান্ডারি হত্যা মামলায় দুই জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ছয় জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় খালাস পেয়েছেন পাঁচ জন।

মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রামের প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ শেখ ছামিদুল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো—মো. ইসমাইল ওরফে পিস্তল ইসমাইল এবং শহীদুল ইসলাম খোকন। যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো—আবু, কামাল, জসিম, তোতা, নাছির ও সুমন। তাদেরকে আরও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ইসমাইল ও যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ছয় আসামি পলাতক। খালাস পাওয়া পাঁচ জন হলো—সাইফুদ্দিন, আজিম, নাজিম, রঞ্জু ও জাহাঙ্গীর।

চট্টগ্রাম জেলা মহানগর আদালতের অতিরিক্ত পিপি লোকমান হোসেন চৌধুরী বলেন, মামলার বিচার চলাকালে মোট ২৫ জন সাক্ষীর মধ্যে ২৩ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২১ জানুয়ারি রাতে রাঙ্গুনিয়ার রানীরহাট প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মূল ফটকের কাছে জিল্লুর রহমান ওরফে জিল্লুর ভান্ডারিকে প্রচন্ড মারধর করা হয়। এরপর আসামিরা তাকে গুলি করে হত্যা করে। ঘটনার পর নিহতের ছোট ভাই মোহাম্মদ আজিম উদ্দিন রাঙ্গুনিয়া থানায় হত্যা মামলা করেন। ২০১৬ সালের ৯ অক্টোবর ১৩ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় সিআইডি।

Source link

Related posts

‘গণতন্ত্রের প্রতি শ্রদ্ধা থাকলে বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে’

News Desk

আজ যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না

News Desk

দক্ষিণ কোরিয়া গমনেচ্ছুদের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে সাতদিন

News Desk

Leave a Comment