Image default
বাংলাদেশ

কুয়াকাটায় ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল’ শুরু, হোটেল-রিসোর্টে ছাড়

পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটা-২০২৩’ উৎসব। এই উৎসব ঘিরে কুয়াকাটায় পর্যটকদের টানতে হোটেল-মোটেল ও রিসোর্টের মালিকরা ২০ থেকে ৫০ শতাংশ ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছেন। পাশাপাশি দুই হাজার ১০০ টাকায় এক রাত ও দুই দিনের প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন ট্যুর অপারেটররা। পর্যটন শিল্পকে আরও বিকশিত করতে এই উৎসবের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়।

উৎসব উপলক্ষে শুক্রবার (০৮ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় কুয়াকাটা পৌরসভার সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। এটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকত এলাকায় গিয়ে সেমিনারে মিলিত হয়। এ সময় ফিতা কেটে ও পায়রা উড়িয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মানষ কান্তি ঘোষ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন, বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান রাহাত আনোয়ার ও বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তাহের মুহাম্মদ জাবের। র‌্যালিতে ট্যুর অপারেটর, ট্যুর গাইড ও পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীসহ পর্যটকরা অংশ নেন। 

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ৮ ও ৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটা-২০২৩ উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সমুদ্রসৈকতে উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। এই দুই দিন রাখাইনদের কালচারাল অনুষ্ঠান, পুতুল নাচ, বাউল গান, ফানুস উৎসব ও ঘুড়ি উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। পাশাপাশি ‘পর্যটনের মাধ্যমে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে তারুণ্যের ভূমিকা’ শীর্ষক সেমিনারসহ নানা আয়োজন রয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘উৎসবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ফানুস ও ঘুড়ি ওড়ানো, বিচ ফুটবল, বিচ ভলিবল, রাখাইন নৃত্য, পুতুলনাচসহ নানা আয়োজন থাকবে। এছাড়া নানা পদের খাদ্যসামগ্রীর স্টল বসেছে। ইতোমধ্যে উৎসব জমে উঠেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। দেশে পর্যটনকে প্রসারিত করতে চলছে মুজিব’স বাংলাদেশ ক্যাম্পেইন। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এই আয়োজন করেছে। আশা করছি, উৎসবে বিপুলসংখ্যক পর্যটকের আগমন ঘটবে।’

সকাল ১০টায় কুয়াকাটা পৌরসভার সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়

হোটেল-মোটেল ও রিসোর্টের মালিকরা উৎসবে ২০ থেকে শুরু করে ৫০ শতাংশ ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছেন বলে জানালেন কুয়াকাটা হোটেল-মোটেল এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ইব্রাহিম ওয়াহিদ। তিনি বলেন, ‘আশা করছি, ছাড়ের ঘোষণায় কুয়াকাটায় বিপুলসংখ্যক পর্যটকের আগমন ঘটবে।’

Source link

Related posts

বিমানবন্দরে যাওয়ার পর যাত্রী জানতে পারছেন ‘করোনা পজিটিভ’

News Desk

পদ্মা সেতু দিয়ে সময়মতো চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছাবে পাটপণ্য

News Desk

রাত ১২টার পর ইন্টারনেট বন্ধ রাখা উচিত: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

News Desk

Leave a Comment