কিশোরগঞ্জে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরও ১১৮ জন। জেলার শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভৈরবের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। এ নিয়ে জেলায় করোনায় ১৮৫ জনের মৃত্যু হলো। আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৭৭৮ জন। বর্তমানে সক্রিয় করোনা করোনা রোগীর সংখ্যা তিন হাজার ২৩৫ জন।

কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান বৃহস্পতিবার রাতে জানান, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৯ জন নতুন রোগী ভর্তি হন। এ সময়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ১৪ জন। বর্তমানে এ হাসপাতালে ১৮৩ জন রোগী ভর্তি আছেন। তাদের মধ্যে ছয়জন আইসিইউতে ও ১১ জন এইচডিইউতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৬৫ জন, হোসেনপুরে পাঁচজন, করিমগঞ্জে একজন, পাকুন্দিয়ায় চারজন, কুলিয়ারচরে একজন, ভৈরবে ৩২ জন, নিকলীতে দুজন, বাজিতপুরে পাঁচজন, ইটনায় একজন ও অষ্টগ্রামে দুজন রয়েছেন।

বর্তমানে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় সর্বোচ্চ ৯৯১ জন, হোসেনপুরে ২৫৬ জন, করিমগঞ্জে ৪৫ জন, তাড়াইলে ৫০ জন, পাকুন্দিয়ায় ২৭০ জন, কটিয়াদীতে ৫৪২ জন, কুলিয়ারচরে ৬১ জন, ভৈরবে ৬৮৯ জন, নিকলীতে ৫৭ জন, বাজিতপুরে ১৫০ জন, ইটনায় ৩২ জন, মিটামইনে ৩০ জন ও অষ্টগ্রাম উপজেলায় ৫৬ জন করোনা পজিটিভ রোগী রয়েছেন।

জেলায় করোনায় মোট মৃত্যু ১৮৫ জনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় সর্বোচ্চ ৬৫ জন, হোসেনপুরে আটজন, করিমগঞ্জে ৯ জন, তাড়াইলে পাঁচজন, পাকুন্দিয়ায় ১১ জন, কটিয়াদীতে ১৬ জন, কুলিয়ারচরে সাতজন, ভৈরবে ৩৯ জন, নিকলীতে সাতজন, বাজিতপুরে ১৬ জন, ইটনায় একজন ও মিঠামইন উপজেলায় একজন রয়েছেন।

জেলার একমাত্র হাওর উপজেলা অষ্টগ্রামে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে কোনো মৃত্যু নেই। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৮৫ জন। এ পর্যন্ত জেলায় মোট সাত হাজার ৩৫৮ জন সুস্থ হয়েছেন।

Related posts

ইসরায়েল আর বিএনপির মধ্যে পার্থক্য কী, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর

News Desk

ইসি গঠনে ৩২৯ জনের নামের প্রস্তাব পেয়েছে অনুসন্ধান কমিটি

News Desk

মোবাইল কোর্ট সরে গেলেই ১২০ টাকার পেঁয়াজ ২০০

News Desk

Leave a Comment