Image default
বাংলাদেশ

এক চিকিৎসকের প্যাড ব্যবহার করে রোগী দেখছেন আরেকজন, ভিজিট ৬০০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এক চিকিৎসকের প্যাড ব্যবহার করে অবৈধভাবে চিকিৎসা সেবা দেওয়ার অভিযোগে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকালে উপজেলার আমতলী বাজারে পদ্মা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদ। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. মো. মাছুমসহ স্বাস্থ্য বিভাগের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

ডা. মাছুম জানান, উপজেলার চান্দুরা ইউনিয়নের আমতলী বাজার এলাকার পদ্মা ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ডা. সুব্রত সাহার নাম ব্যবহার করে মাইকিং ও প্রচার প্রচারণা চালিয়ে ওই চিকিৎসকের প্যাড ব্যবহার করে ও হাসপাতালের স্টাফদের সহযোগিতায় অন্যএক ব্যক্তি রোগী দেখছেন। এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিকালে সংশ্লিষ্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

তিনি জানান, ম্যাজিস্ট্রেট ঘটনাস্থলে এসে দেখেন, সেখানে ডা. তপন দেবনাথ নামের অপর একজন চিকিৎসক ডা. সুব্রত সাহার নামে তৈরি করা প্যাড ব্যবহার করে রোগী দেখছেন। বিষয়টি হাতেনাতে প্রমাণিত হয়। সংশ্লিষ্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক ও ডা. তপন দেবনাথ উভয়ে নিজেদের দোষ স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।
তাদের দ্বারা সংঘটিত অপরাধের বিষয় আমলে নিয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ অনুযায়ী ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক খুরশেদ আলমকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এ বিষয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদ বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এই ডায়াগনস্টিক সেন্টার রোগীদের সঙ্গে  প্রতারণা চালিয়ে আসছিল। আজ তাদের হাতেনাতে ধরা হয়। ভবিষ্যতে এ ধরনের অপরাধ বন্ধে নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে।

Source link

Related posts

হাসপাতাল বানাতে চান প্রেমের টানে বাংলাদেশে আসা যুক্তরাষ্ট্রের ইঞ্জিনিয়ার

News Desk

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু  

News Desk

ঘরে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ, স্বামী পলাতক

News Desk

Leave a Comment