free hit counter
বাংলাদেশ

উদ্বোধনের আগেই ১২৯ কোটি টাকার সড়কে ফাটল

নওগাঁ-রাণীনগর-আত্রাই-নাটোর আঞ্চলিক মহাসড়ক উদ্বোধনের আগেই কিছু অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে। গত শনিবার বিকালে আত্রাই উপজেলার শাহাগোলা রেল স্টেশনের উত্তর দিকে মহাসড়কটির প্রায় ২০০ ফুট হঠাৎ দেবে গিয়ে ফাটলের সৃষ্টি হয়।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় সড়কে ফাটল দেখা দিয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, ফাটলের কারণ চিহ্নিত করে দ্রুতই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নওগাঁ সড়ক ও জনপথ সূত্রে জানা গেছে, নওগাঁ-রানীনগর-আত্রাই-নাটোর আঞ্চলিক মহাসড়কের ২৯ কিলোমিটার নির্মাণ কাজে ব্যয় ধরা হয়েছে ১২৯ কোটি টাকা। প্রকল্পটি চারটি ভাগে ভাগ করে চার জন ঠিকাদার কাজ করছেন।

ইতোমধ্যে ওই সড়কে পাঁচটি সেতু ও ১০টি কালভার্ট নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। সড়কের উপরিভাগের কাজও শেষের দিকে। সড়কের নওগাঁ অংশে ২৯ কিলোমিটার রাস্তায় রাণীনগর রেল স্টেশন সংলগ্ন সামান্য অংশ পাকাকরণ কাজ বাকি রয়েছে। এরপরও ওই সড়কে চলতে শুরু করেছে বিভিন্ন যানবাহন। বাকি কাজ শেষ হলে দ্রুতই উদ্বোধনের কথা রয়েছে। কিন্তু হঠাৎ সড়কে ওই অংশ দেবে ফাটলের সৃষ্টি হওয়ায় দুর্ঘটনার শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা নাহিদ মিয়া জানান, নওগাঁর ঢাকা রোড থেকে শুরু করে রাণীনগর ও আত্রাই উপজেলার রেললাইনের পাশ দিয়ে চলে গেছে নাটোর শহরের বাইপাস সড়ক। আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন না হলেও ইতোমধ্যে বিভিন্ন যানবাহন রাণীনগর থেকে শুরু করে আত্রাই, নলডাঙ্গা ও বাসুদেবপুর হয়ে নাটোর যাচ্ছে। কিন্তু উদ্বোধনের আগেই শাহাগোলা রেল স্টেশনের উত্তর দিকে মহাসড়কটির প্রায় ২০০ ফুট রাস্তা গত শনিবার হঠাৎ দেবে গেছে। এতে সৃষ্টি হয়েছে বড় ধরনের ফাটল। ব্যাহত হচ্ছে যান চলাচল সড়কটিতে মানসম্মতভাবে কাজ না করায় এই ঘটনা ঘটে।

আত্রাই বাজারের অধিবাসী কামাল হোসেন জানান, আঞ্চলিক মহাসড়কটির নির্মাণ কাজ শেষ হলে দিনাজপুর, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, জয়পুরহাট ও নওগাঁসহ বিভিন্ন জেলায় যানবাহন চলাচল করবে।  ঢাকা যেতে প্রায় এক ঘণ্টা সময় কম লাগবে। কিন্তু আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের আগেই সড়কটি দেবে গেছে।

তার দাবি, পুরো সড়কটি অনেক গভীর খালের পাশ দিয়ে মাটি ভরাট করে তৈরি করা হয়েছে। অথচ সড়কের নিচে গোড়ায় মাটি ধরে রাখার মতো কোনও ব্যবস্থা করা হয়নি। এমন অবস্থায় সড়কের নিচ থেকে মাটি সরে গেলে সড়ক ভেঙে খালের মধ্যে চলে যেতে পারে।

এ বিষয়ে নওগাঁ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান সাজিদ বলেন, ‘বিষয়টি জানতে পেরে আমিসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ঘটনার কারণ অনুসন্ধান চলছে। দ্রুতই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

Source link