free hit counter
অন্যান্য

বিএনপির রাজনীতি বিদ্যুৎবিহীন খাম্বার মতো আশাহীন: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির রাজনীতি বিদ্যুৎবিহীন খাম্বার মতো আশাহীন ও অন্তঃসারশূন্য।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিদ্যুতের জাতীয় গ্রিডে ট্রিপ (অকার্যকর) হওয়া একটি কারিগরি বিষয়। এমনটা যেকোনো সময় ঘটতে পারে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গ্রিড ট্রিপ করে। কিন্তু দেখার বিষয় হলো, কত সময়ের মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা যায়।

সড়ক পরিবহনমন্ত্রী বলেন, গত মঙ্গলবার গ্রিড বিপর্যয়ের পর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সক্ষম হয় সরকার।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘২০০৩ সালে বিএনপির শাসনামলে জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয় ঘটলে তা পুনরুদ্ধারে কয় দিন লেগেছিল?’

বিএনপির মহাসচিবের কাছে এই প্রশ্নের জবাব চান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘ঘণ্টার পর ঘণ্টা, দিনের পর দিন বিএনপির শাসনামলে বিদ্যুৎ ছিল না। সেই ইতিহাস কি বিএনপির মনে আছে?’

বিদ্যুৎ খাতে বিএনপি জাতিকে দীর্ঘমেয়াদি অমানিশার আঁধার উপহার দিয়েছিল বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিএনপি দুর্নীতির অভিযোগ করে। সরকারের অন্ধ সমালোচনা করে। কিন্তু বিদ্যুৎ খাতের বিভিন্ন প্রকল্পে দাতা সংস্থার অর্থায়ন থাকায় তা তারা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণে রাখে। সরকারও তা পর্যবেক্ষণে রাখে। ফলে এখানে অনিয়ম-দুর্নীতির কোনো সুযোগ নেই।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, যারা অন্তরে যা ভাবেন, তাদের মুখে তা প্রকাশ পায়। তাই বিএনপির মুখে সব সময় অনিয়ম, দুর্নীতির কথা শোভা পায়। বিএনপির কাজ হলো বাঁকা পথে চলা। অসত্য তথ্য ও বিভ্রান্তি ছড়ানো।

সরকার নয়, বিএনপিই দেশের জন্য বড় ধরনের বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, একটি দায়িত্বহীন ও ব্যর্থ বিরোধী দল হিসেবে বিএনপি জাতির ঘাড়ে জগদ্দল পাথরের মতো চেপে আছে।

সড়ক পরিবহনমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ নয়, প্রকৃতপক্ষে বিএনপির হাতে দেশ নিরাপদ নয়। তারাই দেশকে, দেশের সম্ভাবনাকে নস্যাৎ করার অপচেষ্টায় লিপ্ত।

এ বছর শারদীয় দুর্গোৎসব অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হওয়ায় সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের নিবিড় তদারকির কারণে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি কোনো অঘটন ঘটাতে পারেনি। আর এ কারণেই বিএনপির মনের জ্বালা আরও বেড়ে গেছে।

Bednet steunen 2023