free hit counter
জেনে নিন শরীরে কোথায় তিল থাকলে কি হয়
জানা অজানা

জেনে নিন শরীরের কোথায় তিল থাকলে কি হয়

মাথায় তিল: মাথার ডান দিকে তিল ভাল রাজনীতিবিদের পরিচয়। আর তা যদি লাল হয় তা হলে সেই ব্যক্তির মন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বাঁ দিকে থাকলে বিয়ে হবে না। ভ্রমন প্রিয়। আর কোনও পুরুষের মাথার পিছনের দিকে তিল থাকলে তিনি স্ত্রীকে ভালবাসবেন। প্রচুর অর্থ উপার্জন করবেন কিন্তু সমাজে তাঁর নাম ডাক হবে না। মাথার মাঝখানে তিল থাকা ভালোবাসার প্রতীক৷ ডান দিকে তিল থাকলে সেই ব্যক্তি কোনও একটি বিষয়ে বিশেষ পাণ্ডিত্য লাভ করেন৷ যাঁদের মাথার বাঁ দিকে তিল আছে তাঁরা অর্থের অপচয় করেন। মাথার ডান দিকের তিল ধন ও বুদ্ধির চিহ্ন। বাঁ দিকের তিল নিরাশাপূর্ণ জীবনের ইঙ্গিত দেয়। যাঁদের চোখের মণিতে তিল থাকে, তাঁরা ভাবুক হন এবং সৃষ্টিশীল হন৷

কপাল: কপালের মাঝামাঝি অংশে তিল থাকলে বুদ্ধিমান ও চালাক মনে করা হয়। আর কপালের ডানদিকে তিল থাকলে ব্যক্তিটি সঙ্গী হিসাবে ভালো। এছাড়া কপালের বামদিকে তিলের উপস্থিতিকে সৌভাগ্যবানের প্রতীক ধরা হয়।

ভ্রু-তে তিল: ডান ভ্রুতে তিল থাকলে দাম্পত্য জীবন ভালো হয়৷ বাঁ ভ্রুতে তিল থাকলে দাম্পত্য কলহ বাঁধে৷ তবে ভ্রু-তে তিল থাকার একটি শুভ লক্ষণ হল, এঁরা প্রায়ই ভ্রমণ করেন৷

থুতনি: জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে যাদের থুতনিতে তিল রয়েছে তারা অত্যন্ত যত্নবান, ভ্রমণ পাগল ও আবেগপ্রবণ। তবে তিলের অবস্থান যদি থুতনির ডানদিকে হয় তবে ব্যক্তি যুক্তিবাদী হন আর বামদিকে থাকলে স্পষ্টভাষী।

চোখের মণিতে তিল-চোখে পাতায়: যদি ডান পাতায় তিল থাকে, তাঁরা অনেক বেশি সংবেদনশীল হন৷ কানে তিল থাকা ব্যক্তি দীর্ঘায়ু হন৷ ডান চোখের মণিতে তিল থাকলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির বিচারধারা উচ্চমার্গের হয়৷ স্ত্রী বা পুরুষের মুখমণ্ডলের আশপাশে তিল থাকলে, তাঁরা সুখী ও ভদ্র হন। মুখে তিল থাকলে ব্যক্তি ভাগ্যে ধনী হন। তাঁর জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিনী খুব সুখী হন। নাকে তিল থাকলে ব্যক্তি প্রতিভাবান হন এবং সুখী হন। যে নারীর নাকে তিল রয়েছে তাঁরা সৌভাগ্যবতী হন। যাঁর ডান চোখে তিল রয়েছে খুব সহজেই তিনি প্রচুর অর্থ উপার্জন করবেন। আর বাঁ দিকে চোখে তিল থাকা ব্যক্তি ভীষণই রাগি। অনেক মহিলার সঙ্গে গোপন মেলামেশা করায় বদনাম হবে।

ঠোঁটের উপরে তিল: ঠোঁটের উপরে দিকে তিল রয়েছে তাদের হৃদয় ভালোবাসায় ভরপুর। এঁদের যৌনইচ্ছে প্রবল হয়৷ তবে তিল ঠোঁটের নীচে থাকলে সে ব্যক্তির জীবনে দারিদ্র্য থাকে৷ জিভের মাঝখানে তিল থাকলে পড়াশোনায় বাধা পাবেন। স্বাস্থ্য খারাপ যাবে। জিভের ডগায় থাকলে সেই ব্যক্তি খুব ভাল বক্তা এবং বুদ্ধিমান হবেন। খেতে ভালবাসেন।

জিহ্বা বা জিভ: জিভের মাঝখানে তিল থাকলে পড়াশোনাতে বাধা আসতে পারে, স্বাস্থ খারাপ যাবে কিন্তু জিভের ডোগাতে বা অগ্রদেশে তিল থাকলে সেই মানুষ একজন ভালো বক্তা হয়ে উঠতে পারেন এবং বুদ্ধিমান হন ।

হাতের তালু: ডান হাতের তালুতে তিল ধৈর্যশীলতা, বুদ্ধিমত্তা এবং ভালো ভাগ্যের প্রতীক এবং বাম হাতের তালুতে তিল থাকলে সেই ব্যাক্তির ধনী হবার সম্ভাবনা থাকে ।

গলা: গলায় তিল থাকলে ভাগ্যোন্নতি হয় । তবে সেই তিল নারী বা পুরুষ দুই ক্ষেত্রেই যদি ডান দিকে হয় তাহলে শুভ । বাম দিকে থাকলে অনেক সময় সম্পদ হানি ঘটে থাকে । পুরুষের গলায় তিল থাকলে সেই পুরুষ স্ত্রীর খুবই ভালোবাসা পেয়ে থাকেন ।

পেট: পেটে তিলের উপস্থিতি আধ্যাত্মিকতার লক্ষণ প্রকাশ করে। পেটের ডানদিকে তিল থাকলে অর্থভাগ্য বেশ শুভ হয় আর বামদিকে তিল ব্যক্তির হিংসার চিহ্ন নির্দেশ করে।

পায়ে তিল: ডান পায়ের কাফে তিল থাকলে সেই ব্যক্তি সফল হবেন। আর বাঁ পায়ে থাকলে কর্মসূত্রে বিদেশ ভ্রমণ করবেন।

হাত: হাতে তিল থাকা ব্যক্তিরা অত্যন্ত দক্ষ এবং পরিশ্রমী হয়ে থাকেন এবং সাফল্য তাদের কাছে সহজেই ধরা দেয়।

পা: পায়ের তলায় তিল থাকা ব্যক্তি সাধারনত ভ্রমণ পাগল হয়ে থাকেন। এছাড়াও পায়ে তিল থাকা ব্যক্তি সহজে সমাজে সমাদৃত হন।

বিশেষ অঙ্গ: শরীরের বিশেষ অঙ্গ বা যৌনাঙ্গে তিল থাকলে তাকে ভালো ও সৎ মনে করা হয়। এছাড়া যৌনাঙ্গে তিল উত্তম জীবন ও যৌনসঙ্গীর লক্ষণ প্রকাশ করে।