Image default
জানা অজানা

কতটা পথ পেরোলে বন্ধু হওয়া যায় প্রমাণ করলো পেঙ্গুইন

প্রায় ৮ হাজার কিলোমিটার সমুদ্র পথ পাড়ি দিয়ে একটি পেঙ্গুইন দেখা করতে এল এক বৃদ্ধের সঙ্গে। ভাবতে পারছেন! কারণ সেই বৃদ্ধ এক সময় তার প্রাণ বাঁচিয়ে ছিলেন। মানুষ মানুষের অবদান ভুলে গেলেও এই ছোট্টপ্রাণটি কিন্তু মোটেও ভোলেনি সেই অবদানের কথা। আর তাই তার চির আপন বন্ধুটির সঙ্গে দেখা করতে প্রতিবছর একবার হলেও আসে পেঙ্গুইনটি।

হৃদয় নাড়িয়ে দেওয়ার মতো এই ঘটনা ব্রাজিলে। দক্ষিণ আমেরিকার সেই পেঙ্গুইনটির নাম ডিনডিম। যাকে ৮ বছর আগে প্রাণে বাঁচিয়েছিলেন সেই বৃদ্ধ। ২০১১ সালের ঘটনা। যোয়াও প্যারিইলা ডি সুজা নামে ৭১ বছরের এক বৃদ্ধ মৎস্যজীবী ব্রাজিলের একটি দ্বীপে বাস করেতেন। হঠাৎই তিনি একটি ছোট্ট বাচ্চা পেঙ্গুইনকে দেখতে পান সমুদ্রে ভাসমান তেলে আটকে গেছে। তিনি তাকে উদ্ধার করে তাকে পরিষ্কার করেন, আদর যত্ন করে সুস্থ্য করে তোলেন এবং আদর করে তার নাম দেন ডিনডিম। কিছুদিন পর যখন ডিনডিম সুস্থ হয়ে যায় তখন বৃদ্ধ সিদ্ধান্ত নেন তাকে সমুদ্রে ছেড়ে দেওয়ার। যদিও ডিনডিম কোনওভাবেই যেতে রাজি ছিল না।

কতটা পথ পেরোলে বন্ধু হওয়া যায় প্রমাণ করলো পেঙ্গুইন
ছবি: সংগৃহিত

১১ মাস থাকার পর বৃদ্ধের সঙ্গে তার একটা মায়া তৈরী হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু বৃদ্ধ চাইছিলেন সে ফিরে যাক তাঁর আসল আস্তানায়। বৃদ্ধ তাকে সমুদ্রে ছেড়ে দেন। কিন্তু কয়েক মাস বাদেই সেই মজার ঘটনাটি ঘটে। আচমকাই ডিনডিম এসে হাজির হয় সেই বৃদ্ধের কাছে। প্রতি বছর নিয়ম করে চলতে থাকে এই আশা যাবার পালা। তবে কেউ জানেন না, পেঙ্গুইন বৃদ্ধের সঙ্গে সে দেখা করার পর কোথায় ফিরে যায়। তবে অনুমান করা হচ্ছে, আর্জেন্টিনা এবং চিলির আশপাশ কোনও এলাকায় সে চলে যায় এবং প্রজননকালীন সময় পেরিয়ে গেলে ফের একবার ফিরে আসে সেই বৃদ্ধের কাছে। দেখা করে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ফের চলে যায় তার নিজের আস্তানায়। এভাবেই বছরের পর বছর ধরে চলছে পেঙ্গুইনের বৃদ্ধের সেই বন্ধুত্বের কাহিনী।

সূত্র: আজকাল

Related posts

পুরুষের তুলনায় নারী-রক্তই বেশি প্রিয় মশাদের, দাবি পতঙ্গবিদদের

News Desk

ইতিহাসের সবথেকে বড় ছয়টি মিথ্যা, জানলে অবাক হবেন!

News Desk

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ১০ টি জাহাজ

News Desk

Leave a Comment