free hit counter
আন্তর্জাতিক

দক্ষিণ আফ্রিকায় নাইট ক্লাবে পদপিষ্ট হয়ে নিহত ২০

ফরেনসিক কর্মীরা সিনারি পার্কের এনিওবেনি ট্যাভার্নের ভিতরে পাওয়া ভিকটিমদের মৃতদেহ উদ্ধার করছেন

নাইট ক্লাবে প্রাণ খুলে আনন্দ করছিলেন। কিন্তু প্রবল ভিড়ের চাপেই ঘটে গেল বিপর্যয়। পদপিষ্ট হয়ে প্রাণ হারালেন অন্তত ২০ জন। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ আফ্রিকার ইস্ট লন্ডন শহরে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় চারজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেই অনুমান স্থানীয় কর্মকর্তাদের। মৃতদের বয়স আঠেরো থেকে বিশ বছরের মধ্যে। ঘটনার তদন্ত চলছে বলে জানা গেছে।

রবিবার (২৬ জুন) ভোররাতে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয় কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে দুর্ঘটনার কারণ জানানো হয়নি। তবে সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে, পার্টি চলাকালীন ক্লাবের মধ্যে ভিড় বেড়ে গিয়েছিল। বার সংলগ্ন এলাকায় একসঙ্গে বহু মানুষ জমায়েত হয়েছিলেন। সেখানেই বিপত্তি ঘটে। কোনও কারণে ধাক্কাধাক্কি শুরু হয় উপস্থিত জনতার মধ্যে। তখনই পায়ের চাপে মৃত্যু হয় বিশ জনের। আরও জানা গেছে, সংশ্লিষ্ট নাইট ক্লাবটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, বন্ধ ক্লাবের ভিতরে আরও মৃতদেহ থাকতে পারে। খবর সংবাদ প্রতিদিনের।

মৃতদের দেহ দেখার অনুমতি দেওয়া হয়নি তাদের পরিবারের সদস্যদের। তবে মৃত্যুর কারণ জানতে ময়না তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। টেমবিনকোসি কিনানা নামে এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, “এই ঘটনা নিয়ে কোনওরকম ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়ুক, আমরা চাই না। পারিপার্শ্বিক তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। এখনই কোনও মন্তব্য করা উচিত হবে না।”

ঘটনাস্থলে যাওয়ার কথা আছে দক্ষিণ আফ্রিকার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ভেকি চেলের। এই ঘটনায় শোকজ্ঞাপন করেছেন তিনি। ঘটনার সঠিক তদন্তের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ বাহিনী পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন মন্ত্রী। দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, “অল্পবয়সি ছেলে-মেয়েরা আনন্দ করছিল। শারীরিক ভাবে তাদের কোনও সমস্যা ছিল না। এইভাবে তাদের মৃত্যু মেনে নেওয়া যায় না।”

Source link