free hit counter
বাংলাদেশ

নিজের জমির ধান নিজেই কাটলেন চেয়ারম্যান

নিজের জমিতে পাকা ধান কাটছেন ইউপি চেয়ারম্যান। প্রাথমিকভাবে দেখে যে কেউই মনে করতে পারেন এটি হয়তো ফটোসেশন। কিন্তু কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী নিয়মিত নিজের জমিতে ধান চাষ করেন এবং চাষের কাজ করেন তিনি নিজেই। ট্রাক্টর বা লাঙল দিয়ে জমি চাষ, কোদাল দিয়ে জমির আইল কাটা, বীজতলা তৈরি, চারা উত্তোলন, ধানের চারা রোপণ সেচ ও পাকা ধান কাটাসহ সব কাজেই দেখা যায় এই চেয়ারম্যানকে।

পারিবারিকভাবে তাদের অনেক জায়গা সম্পত্তি রয়েছে। আর নিজের ফসলি জমিতে শ্রমিকদের সঙ্গে কাজে নেমে পড়েন। সাধারণ মানুষের কাতারে এসে এই ধরনের কাজ করার কারণে এলাকায় তার বেশ জনপ্রিয়তা।

উখিয়ার হলদিয়াপালং এলাকার কৃষক আবুল কাসেম জানান, চেয়ারম্যান হওয়ার আগে থেকেই ইমরুল কায়েস চৌধুরী প্রতি মৌসুমে কৃষকদের সঙ্গে কাজ করেন। করোনাকালে তিনি নিজের জমির পাশাপাশি অন্য কৃষকের জমিতেও ধান কেটে সহযোগিতা করেছেন। তার এই কাজে স্থানীয় যুবকরা বেশ অনুপ্রাণিত হয়।

উখিয়া উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা প্রসঞ্জিত তালুকদার জানান, চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী সরকারি কৃষক তালিকায় নিবন্ধিত আছেন। তার নিজের জমির ফসল উৎপাদনে নিজেই কাজ করেন। এতে অন্য কৃষকরা উৎসাহী হয়।

এই বিষয়ে ইমরুল কায়েস চৌধুরী বলেন, ‘কৃষিকাজ ও ধান চাষ আমাদের পারিবারিক ঐতিহ্য। এটি আমাদের প্রধান আয়ের উৎস। বংশ পরম্পরায় আমরা প্রতি মৌসুমে পারিবারিকভাবে প্রায় ৫০ বিঘা জমিতে ধান চাষ করি।  এতে ২০-২৫ জন শ্রমিক কাজ করে। প্রতি মৌসুমেই নিজের জমিতে চাষ, ধান রোপণ, ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজ আমি সবসময় করতে চেষ্টা করি। নিজের ভালোলাগা থেকেই এই কাজ করা। নিজেদের ফসলে মাঠে কাজ করে মানসিক একটি প্রশান্তি লাগে।’

Source link